শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:০৩ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

টিপু সুলতান সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রেখে ধর্মচর্চার দৃষ্টান্ত ভূমিকা রেখেছে

  • সময় মঙ্গলবার, ২ নভেম্বর, ২০২১
  • ১০৪ বার পড়া হয়েছে

কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা ইউপি নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী টিপু সুলতান তথা নৌকা মার্কার সমর্থনে নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সভায় জননেত্রী শেখহাসিনার স্মৃতি বিজড়িত বাঁকখালী নদীর তীর ঘেঁষা সদর ইউনিয়ন ঝিলংজায় টিপু সুলতানকে নৌকা প্রতীকে বিপুল ভোটে পুনরায় নির্বাচিত করার আহ্বান জানিয়েছেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।
সোমবার (১ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ঝিলংজা ইউনিয়ন পরিষদস্থ ছুরতিয়া সিনিয়র মাদ্রাসার মাঠে ঝিলংজা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি সরওয়ার আলম চৌধুরীর সভাপতিত্বে যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আ.লীগ নেতা মোহাম্মদ আলমের সঞ্চালনায় উক্ত সভা অনুষ্ঠিত হয়।  শুরুতে কুরআন তেলাওয়াত করেন মাওলানা হোছাইন ও স্বাগত বক্তব্য রাখেন, ঝিলংজা ইউনিয়ন  ছাত্রলীগের আহ্বায়ক মিজানুর রহমান।
এতে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, নৌকার বিজয়ের ফলেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে উন্নয়নের মহাসড়কে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। ঝিলংজায় বিগত ৫ বছর ধরে করে আসা উন্নয়ন এবং অসমাপ্ত উন্নয়নের কাজ শেষ করতে আগামী ১১ নভেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদরের অত্যন্ত গুরুত্বপূণ এই ইউনিয়নে নৌকার মাঝি টিপু সুলতানের বিকল্প নেই বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
জনসভার প্রধান আকর্ষণ আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থীর পিতা এবং সাবেক উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মনিরুল আলম চৌধুরী বলেন, নৌকা স্বাধীনতা ও উন্নয়নের প্রতীক। নৌকার বিজয়ে মানুষের প্রাপ্য অধিকার নিশ্চিত হয়। টিপু সুলতান গত পাঁচ বছরে এলাকায় সম্প্রদায়িক সম্প্রতি বজায় রাখা, প্রত্যেক নাগরিকের ধর্মচর্চা ওয়াজ মাহফিল এবং করোনাকালীন সময়ে দৃষ্টান্তমূলক ভূমিকা রাখেন। যা পুরো দেশবাসীর নজর কাড়ে। তাই ঝিলংজা ইউনিয়নবাসীর কল্যাণ ও উন্নয়নের জন্য আমাদেরকে ১১ নভেম্বরের নির্বাচনে দল মত নির্বিশেষে ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে।
আরো বক্তব্য রাখেন, কক্সবাজার জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি রাজাউল করিম, সাংগঠনিক সম্পাদক ও পৌরসভার প্যানেল মেয়র মাহমুবুর রহমান, পৌর আ. লীগের সভাপতি নজিবুল ইসলাম, জেলা সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি রহিম উদ্দিন, সদর আ. লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল করিম মাদু, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কায়সারুল হক জুয়েল, সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান রশিদ মিয়া, ঝিলংজা ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক কুদুরত উল্লাহ, বাংলাবাজারের বিশিষ্ট সমাজ সেবক ওবাইদুল হক মিয়াজী, ঝিলংজার সাবেক ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান দিদারুল আলম চৌধুরী, জেলা কৃষকলীগের সদস্য শেখ ইয়াকুব আলী ইমন, আ.লীগ নেতা ও বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এনাম, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, ইউনিয়ন যুবলীগের আহবায়ক আব্দু শুক্কুর খন্দকার, সেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি হেলাল উদ্দিন, আ.লীগ নেতা ঈসমাইল, ঝিলংজা ২ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক রুসতম আলী, ঝিলংজা ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি জামাল উদ্দিন, পৌরসভার ১৩ নং ওয়ার্ড আ.লীগের সধারণ সম্পাদক মো: ইলিয়াস, ঝিলংজা ইউনিয়ন আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দিদারুল আলম, ইউনিয়ন আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ। এসময় নির্বাচন ভিত্তিক একটি গান পরিবেশন করেন সাংবাদিক শহীদুল্লাহ।
এ সময় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী টিপু সুলতান বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সরকারের ধারাবাহিকতা প্রয়োজন। কারণ, অনেক উন্নয়ন পরিকল্পনা বাস্তবায়নাধীন আছে। তিনি বিগত ৫ ও তার আগে অন্য চেয়ারম্যানের আমলের উন্নয়নের চিত্র তুলনা করে দেখার জন্য জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, আমি আপনাদের কাছে ওয়াদা করছি আমার জীবনের শেষবিন্দু পর্যন্ত এই ঝিলংজা ইউনিয়নের উন্নয়নে উন্নয়নে কাজ করে যাবো। বিগত ৫ বছরে এই ইউনিয়নের ৮০% কাজ শেষ করেছি। পুনরায় আমাকে নির্বাচিত করলে এলাকার সন্ত্রাস ও অপরাধ নির্মূল করবো। আগামী ১১ নভেম্বর নৌকা মার্কায় ভোট প্রদান করে অসমাপ্ত কাজগুলো সমাপ্ত করে এলাকার উন্নয়নে সহযোগিতা করতে আরেকবার আপনাদের সহযোগীতা চাই।
এ সময় আ’লীগ ও সহযোগি সংগঠনের শত শত নেতাকর্মী ছাড়াও হাজার হাজার স্থানীয় ভোটার উপস্থিত ছিলেন। নির্বাচনী জনসভাস্থল জনসমুদ্রে পরিণত হয়। উল্লেখ্য, আগামী ১১ নভেম্বর সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: