শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৮:১৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

বসুন্ধরার এমডিকে গ্রেফতারের দাবিতে রাস্তায় মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা

  • সময় রবিবার, ২ মে, ২০২১
  • ৭১ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর গুলশানে কলেজছাত্রী মুনিয়াকে হত্যা করা হয়েছে দাবি করে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের গ্রেপ্তার ও শাস্তি দাবি করেছে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড ও মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্ম।

এ ঘটনায় আনভীরের পরিবারের অন্য সদস্যরাও জড়িত দাবি করে তাদের দেশে ফিরিয়ে বিচারের মুখোমুখি করারও দাবি জানায় সংগঠন দুটি।

শনিবার (১ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনের রাস্তায় আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে এ দাবি করা হয়।

কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের বিভিন্ন অনিয়মের চিত্র তুলে ধরে বক্তব্য দেন সংগঠনের দায়িত্বশীলরা।

মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মুনিয়াকে প্রলোভনের ফাঁদে ফেলে হত্যা করে আত্মহত্যা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার অপচেষ্টা চালানো হচ্ছে বলেও অভিযোগ করা হয়। বসুন্ধরার এমডি আনভীরকে কেনো গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না এমন প্রশ্ন তোলা হয় কর্মসূচি থেকে।

গত সোমবার (২৬ এপ্রিল) সন্ধ্যায় গুলশানের ১২০ নম্বর সড়কের ১৯ নম্বর বাসার একটি ফ্ল্যাটে থেকে কলেজ ছাত্রী মুনিয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় মুনিয়ার বড় বোন নুসরাত জাহান তানিয়া বাদী হয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের এমডি সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনার অভিযোগ এনে একটি মামলা দায়ের করেন।

সায়েম সোবহান আনভীরের বিরুদ্ধে মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, সায়েম সোবহানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল মুনিয়ার। প্রতিমাসে এক লাখ টাকা ভাড়ার বিনিময়ে সায়েম সোবহান মুনিয়াকে ওই ফ্ল্যাটে রেখেছিল। আনভীর নিয়মিত ওই বাসায় যাতায়াত করতো। তারা স্বামী-স্ত্রীর মতো করে থাকতো।

মুনিয়ার বোন অভিযোগ করেছেন, তার বোনকে বিয়ের কথা বলে ওই ফ্ল্যাটে রেখেছিল। একটি ছবি ফেসবুকে দেওয়াকে কেন্দ্র করে সায়েম সোবহান তার বোনের ওপর ক্ষিপ্ত হয়। তাদের মনে হচ্ছে, মুনিয়া আত্মহত্যা করেনি। তাকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: