শুক্রবার, ১৪ মে ২০২১, ০৮:০৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

ইউনিয়ন পরিষদ ভবন আছে বসার যায়গা নেই!

  • সময় বৃহস্পতিবার, ২৯ এপ্রিল, ২০২১
  • ২৩৭ বার পড়া হয়েছে

জাহেদ হাসান :
অনেক কষ্টের বিনিময়ে গড়া পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদ ভবন,সেই ভবনটি নির্মান করার কিছুদিন পর মায়ানমার সেনাদের অত্যাচারে এদেশে রোহিঙ্গাদের আগমন।রোহিঙ্গাদের সার্বিক নজরদারী ও দেশের নিরাপত্তা দেয়ার জন্য সে থেকে এই ভবনে অবস্থান করছে বাংলাদেশ সেনা বাহিনী।কিন্তু বাংলাদেশ সেনা বাহিনীর জন্য মাননীয় জেলা প্রশাসক মহোদয় গত এক বছর পুর্বে শফি উল্লাহ কাটা নামক স্থানে এক একর জমি বরাদ্ধ দিয়েছে।এর পরও বাংলাদেশ সেনা বাহিনী ইউনিয়ন পরিষদ ছেড়ে না দেওয়ার কারনে পালংখালী ইউনিয়ন বাসী ইউনিয়ন সেবা থেকে বঞ্চিত।সেই থেকে ইউনিয়ন বাসীকে সেবা দিয়ে আসছে কখনো দোকানে বসে, কখনো রাস্তায় দাঁড়িয়ে। বিগত তিন বছরের উপরে মানবতার সেবা দিতে গিয়ে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সেনাদের অবস্থানে রয়েছে পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে।মানবতা দেখাতে গিয়ে আটকিয়ে আছে পালংখালী ইউনিয়নের ৫০ হাজার মানুষের ভাগ্য,৪ হাজারের উপরে ভিজিডিএফ চাল বিতরণ জায়গার অভাব, করোনা কালীন সময়ে চাল বিতরণের জন্য প্রচুর পরিমাণ জায়গার প্রয়োজন থাকলেও তা সম্ভব হয়নি। এমতো অবস্থায় পালংখালী ইউনিয়ন বাসীর সসুবিদার্ত্বে ও বর্তমানে হতদরিদ্র মহিলাদের ভিজিডি চাল বিতরন করাও সম্ভব না হওয়ায় গত ১২ এপ্রিল চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর ইউনিয়ন পরিষদ ভবন অবমুক্তির জন্য একটি লিখিত আবেদন করেন। গত ২৮ এপ্রিল মাসেও পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার রাস্তার পাশে বসে খোলা আকাশের নিচে স্হানীয়দের মাঝে বিতরণ করেছেন। এই বিষয়ে চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী জানান, দীর্ঘদিন ধরে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে স্মারক লিপি দিয়ে কাজ হচ্ছে না, সরকার তাদের জন্য জায়গার বরাদ্দ দিয়ে ও সেখানে না যাওয়ার কারনে ইউনিয়ন বাসীকে সেবা দিতে পারছিনা, করোনা কালীন সময়ে জায়গা সংকট ও সংকীর্ণতার কারণে ত্রাণ দিতে সমস্যা হচ্ছে। তিনি আরও জানান,পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদ অবমুক্ত করার জন্য সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের কাছে লিখিত আবেদন করার কারণে কিছু সেনা সদস্য আমাকে হেউকরে ইউনিয়ন পরিষদ দখলে রাখার জন্য গত ২ দিন যাবৎ প্রতিনিয়ত আমার পরিবারকে হুমকি-ধামকি সহ মানষিক ভাবে নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে।এমতাবস্থায় আমি ও আমার পরিবারের নিরাপত্তা সহ পালংখালী ইউনিয়ন বাসীর ন্যায্য অধিকার ফিরিয়ে দেয়ার জন্য আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার কাছে বিশেষ আবেদন জানাচ্ছি।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: