শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৬:৫৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

ওয়াজ মাহফিলে উগ্রবাদ-উত্তেজনাকর বক্তব্য দিতেন হেফাজত নেতারা

  • সময় বুধবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২১
  • ১২২ বার পড়া হয়েছে

হেফাজতে ইসলামের এক ডজনেরও বেশি নেতা ওয়াজ মাহফিলে ধর্মীয় উপদেশের পরিবর্তে তালেবান ও আল কায়েদার মতো সন্ত্রাসী সংগঠনের প্রশংসাসহ উগ্রবাদের পক্ষে নানা বক্তব্য দিতেন বলে অভিযোগ পুলিশের। ইসলামি চিন্তাবিদরা বলছেন, তালেবান ও আল কায়েদার আদর্শ ইসলামের মূলনীতির পরিপন্থী। নিরাপত্তা বিশ্লেষকদের মতে, এ ধরনের বক্তব্যে বিভ্রান্ত হয়ে শ্রোতাদের কেউ কেউ ঝুঁকতে পারেন উগ্রবাদের দিকে।বিভিন্ন মামলায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক সদ্য বিলুপ্ত হেফাজতে ইসলামের প্রায় অর্ধশত নেতা। তাদের অনেকেই ওয়াজ মাহফিলে ধর্মীয় উপদেশের পরিবর্তে দিতেন নানা উগ্রবাদী বক্তব্য। তাদেরই একজন হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব মামুনুল হক। যিনি বরাবরই তার ওয়াজে সন্ত্রাসী সংগঠন- তালেবানকে আফগানিস্তানের ত্রাণকর্তা বলে উল্লেখ করেন। জঙ্গি তালেবান নেতা মোল্লা ওমরকে উপাধি দেন-আমিরুল মোমেনিন বলে।

সদ্য বিলুপ্ত হেফাজতের সহকারী মহাসচিব মুফতি সাখাওয়াত হোসেন রাজি তালেবান- আমেরিকা চুক্তিকে তালেবান ইসলামের বিজয় বলে দাবি করে এ প্রজন্মকে তা জেনে রাখার আহ্বান জানান।পুলিশের হাতে আটক আরেক হেফাজত নেতা খোরশেদ আলম কাসেমী নামাজ-রোজার পরিবর্তে জিহাদের মাধ্যমে দ্রুত জান্নাত লাভের আহ্বান জানান।

হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী ধর্মীয় উপদেশের পরিবর্তে হেফাজত আমির বাবুনগরীকে ‘কোরআনের জীবন্ত পাতা’ বলে দাবি করেন। হেফাজত নেতা মামুনুল হকের সমালোচনাকারীদের চোখ উপড়ে ফেলার হুমকি দেন তিনি।

আটক ঢাকা মহানগর আমির জুনায়েদ আল হাবীব ওয়াজ মাহফিলের বেশির ভাগেই থাকে হেফাজতে ইসলামের নেতৃত্বে ভারত আক্রমণসহ নানা উত্তেজনাকর বক্তব্য।

ইসলামি চিন্তাবিদরা বলছেন তালেবান ও আল কায়েদার আদর্শ ইসলামের মূলনীতি সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

ইসলামি চিন্তাবিদ উপাধ্যক্ষ আবুল কাশেম ফজলুল হক বলেন, তালেবান ও আল কায়েদার উগ্রবাদী সংগঠন বা শক্তি আছে, এককথায় বলি, এর সঙ্গে শান্তির ধর্ম ইসলামের ন্যূনতম সম্পর্ক নেই।

পুলিশ বলছে, রাবেতাতুল ওয়ায়েজীন নামে একটি সিন্ডিকেট সংগঠনের মাধ্যমে হেফাজত নেতারা একযোগে ওয়াজ মাহফিলে ভারত বিরোধিতা এবং তালেবানসহ নানা উগ্রবাদী সংগঠনের পক্ষে বক্তব্য দিতেন।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, রাবেতাতুল ওয়ায়েজীন নামে সংগঠন তৈরি করে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে সেই সিন্ডিকেটকে বাধ্য করা হচ্ছে তাদেরকে ওয়াজ মাহফিলে নেয়ার জন্য। উগ্রবাদ বা এ ধরনের তাদের বক্তব্য তাদের ভিশন আছে সেগুলো বাস্তবায়ন করতে পারে।

নিরাপত্তা বিশ্লেষক মেজর মোহাম্মদ আলী শিকদার বলেন, হেফাজত নেতাদের এ ধরনের বক্তব্য ধর্মপ্রাণ সাধারণ মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে উগ্রবাদের দিকে ঝুঁকতে পারেন।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: