রবিবার, ২০ জুন ২০২১, ০৪:২০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

ভারুয়াখালী সন্ত্রাসীদের হামলায় নারীসহ একই পরিবারের ৫ জন আহত, ১জন আশঙ্কাজনক

  • সময় শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১
  • ৮৯ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক,
কক্সবাজার সদর উপজেলা ভারুয়াখালী ৬নং ওয়ার্ডের হাজিরপাড়া সন্ত্রাসীদের হামলায় নারীসহ একই পরিবারের ৫/৬ জন গুরুত আহত হয়েছেন। হামলার শিকার হয়েছে হাজিরপাড়া নিরহ আব্দুর রহিম প্রকাশ ওয়াদালি পরিবার। ওই সন্ত্রাসীরা ২৩ এপ্রিল রাত এগারোটার সময় ওয়াদআলী সহ পরিবারের ওপর নিশংস ভাবে হামলা করে বয়োবৃদ্ধ নারী-পুরুষ ও শিশুনারীসহ ৫ জনকে গুরুতর আহত করেছে। ওয়াদালীকে সন্ত্রাসীরা ধারালো দা দিয়ে পেটের মধ্যখানে কুপিয়ে পেটের নাড়িভুড়ি বের করে ফেলে। আহত ওয়াদালির অবস্থা আশঙ্কাজনক। ঘটনার পরপর স্থানীয়রা ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে নিয়ে পরিবারের সকল আহতদের ভর্তি করা হয় । আব্দুর রহিম তথা ওয়াদালি ও তার মেয়ে লুৎফার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে রেফার করা হয়। ওয়াদালি স্ত্রী আহত অবস্থায় জাহানারা প্রতিবেদককে জানান, জায়গা সংক্রান্ত বিষয়কে কেন্দ্র করে গোলাল হোসেনের পুত্র জিয়াউর রহমান রাতের অন্ধকারে একদল ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে ওয়াদালীর পরিবারের উপহার খুন করার উদ্দেশ্যে হামলা চালায়। এসব সন্ত্রাসীদের মধ্য থেকে চিনতে পারে ৮ নাম্বার ওয়ার্ডের নানা মিয়াপাড়া গোলাল হোসেনের পুত্র জিয়াউর রহমান (৪০), নুরুল ইসলামের পুত্র ইয়াসিন(২৫), ছোট চৌধুরীপাড়া জাফর আলমের পুত্র আলি উল্লাহ(২৮), সনধারালো দা লাঠি কয়েকজন মহিলা ছিল, এরা হচ্ছে রাশেদা(৩০), স্বামী জিয়াউর রহমান, নুরশা(৩৫) স্বামী জাফর আলম,আয়েশা(৩৪)স্বামী নুরুল ইসলাম। এছাড়া মুখোশ পরিহিত অস্ত্র হাতে অজ্ঞাত কিছু সন্ত্রাসী পরিচয় করতে পারেনি বলে দাবি করে আহত পরিবার। আহতর পরিবারের সূত্রে, অন্ধকারে অবস্থান করা সন্ত্রাসীরা সংঘব্ধ হয়ে বসতভিটা দখল করিবার উদ্দেশ্যে দা-কিরিচ ও দেশীয় অস্ত্র হাতে নিয়া বিরোধরত বসত ভিটায় প্রবেশ করে। এসময় ঘরে উঠানে আব্দুর রহিম প্রকাশ ওয়াদালি কে একা পেয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করলে তার শৌর চিৎকারে বাড়ীতে থাকা পরিবারের স্ত্রী সহ ছেলে মেয়েরা উদ্ধার করতে এগিয়ে আসলে এই সময় পরিবারের ৪/৫ জনকে নিশংস ভাবে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত ও জখম করে । ঘটনাকালে কারো হাত কারো পা জখম হয়। আহতদের মধ্যে দু’জন বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে মর্মর অবস্থায় চিকিৎসারত রয়েছে । অন্যদিকে আর ৩ জন কক্সবাজার সদর হাসপাতাল চিকিৎসা নিচ্ছ বলে জানায়। এছাড়া অস্ত্রের মুখে ঝিম্মি করে বাড়ীতে লুটপাট চালিয়ে মুল্যবান জিনিসপত্র ও ঘেরা বেড়া ভাংচুর করে প্রচুর পরিমাণ ক্ষতিসাধন করে। আহত ওয়াদালি পুত্র রহমতউল্লাহ জানান, বিবাদীরা আমার নিকটাত্মীয়। তুলনামূলক প্রভাবশালী হওয়ায় দেশের প্রচলিত আইনের তোয়াক্কা করে না। প্রায় সময় আমার পরিবারকে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে থাকে। বর্তমানে তাদের হুমকিতে আমার পরিবার অসহায় অবস্থায় ও নিরাপত্তাহীনতায় রয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে তাদের সন্ত্রাসী হামলার পর হতে প্রান বাঁচাতে পুরো পরিবার নিয়ে পালিয়ে বেড়াতে হচ্ছে। তিনি সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা নিতে আইনশৃংখলা বাহিনীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন। পরিবারের সকল আহত হওয়াতে চিকিৎসা নেয়ার জন্য তাৎক্ষণিক আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে পারেনি। তবে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে আইনগত মামলা প্রক্রিয়া চলছে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: