শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৭:১৬ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

মাদারীপুরে ভূয়া সেনাবাহিনীর মেজরসহ আটক ৩

  • সময় রবিবার, ১১ এপ্রিল, ২০২১
  • ৭৬ বার পড়া হয়েছে

নাবিলা ওয়ালিজা,মাদারীপুর ঃ
মাদারীপুর সদর উপজেলার খোয়াজপুর ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের মাদবর বাড়ি থেকে সেনাবাহিনীর পরিচয়প্রদানকারী ভুয়া নামধারী ৩ জনকে আটক করেছে মাদারীপুর সদর থানা পুলিশ।
শনিবার সকালে খোয়াজপুরের গোবিন্দপুর গ্রামের হালিম মাদবরের বাড়ি থেকে এদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন খুলনা পাইকগাছার রবিউল ইসলামের ছেলে মাসুদ পারভেজ (২৯), বরগুনার আবদুল আজিজ হাওলাদারের ছেলে শাহীন(৩২) ও শাহিনের স্ত্রী শিরিন বেগম (২৬)।
হালিম মাদবরের ছেলে রনি হোসাইন জানায়, তার মামা আব্দুল কায়েম বনফুল পরিবহনের ড্রাইভার, তিনি ঢাকা টু খুলনা বাস চালায়। সেই সুবাদে তার মামার সাথে পরিচয় হয় মাসুদ পারভেজের, যিনি নিজেকে সেনাবাহিনীর লেফটেন্যান্ট কর্নেল(এস এস এফ) হিসেবে পরিচয় দেয়। একসময় কায়ুমের সাথে সখ্যতা গড়ে উঠলে আবদুল কায়ুম, মাসুদ পারভেজ কে বলেন তার ভাগনে রনি হোসানের (২০) একটা চাকুরির ব্যবস্থা করে দিতে। একপর্যায়ে চাকুরীর দেওয়ার কথা বলে বিকাশের মাধ্যমে প্রায় ২০,০০০ টাকা তার ব্যক্তিগত বিকাশের মাধ্যমে হাতিয়ে নেয় মাসুদ পারভেজ। পরবর্তীতে বেড়ানোর কথা বলে মাসুদ পারভেজ সহ শাহিন ও তার স্ত্রী তাদের বাড়িতে আসে। বাড়িতে এসে শাহিন নিজেকে পরিচয় দেয় মেরিন অফিসার হিসেবে। বেড়াতে এসে তারা ১ সপ্তাহ হালিম মাদবরের বাড়িতে অবস্থান করলে তাদের গতিবিধি দেখে স্থানীয়দের সন্দেহ হলে পুলিশে খবর দেয় তারা। পরবর্তীতে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক তাদের করে সদর থানায় নিয়ে আসে।
এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মাসুদ পারভেজ বলে, আমরা বেড়ানোর উদ্দেশ্যে এখানে এসেছি, আমরা কোনো সেনাবাহিনীর সদস্যের পরিচয় দেই নি। আর এই কাজের সাথে আমরা জড়িত না।
পুলিশের এ এস আই মোহাম্মদ আনিচ বলেন, আমরা অভিযোগের ভিত্তিতে ঘটনাস্থল থেকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ জনকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বীকার করেছে, তারা ঘটনার সাথে জড়িত। এই ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন, তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: