বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১০:৫৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

থেমে নেই মানবতার ফেরিওয়ালা কেফায়েত উল্লাহ’র সাহায্যের হাত

  • সময় মঙ্গলবার, ৬ এপ্রিল, ২০২১
  • ৭৯৮ বার পড়া হয়েছে

নিজের জীবন উৎসর্গ করে ও অনিরাপদ রেখে অবিরাম পথ চলে যে ব্যক্তি অন্যকে সামান্যতম হলেও সাহায্য করার উদ্দেশ্যে। দিনকে দিন রাতকে রাত মনে না করে যখন অবিরাম ঘরের বাইরে ছুটে চলেছেন অন্যকে একটু সুস্থ ও বেঁচে থাকার আশায়।, ঠিক তেমনি দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে করোনাকালীন সময়ে যখন চিকিৎকার জন্য কাতর সাধারণ মানুষ। তখনি পাশে দাড়িয়েছেন তরুণ প্রজন্মের আইডল, মানবতাবাদী ও মানবতার ফেরিওয়ালা শিক্ষানুরাগী কেফায়েত উল্লাহ নামের ব্যক্তি। একই সাথে করোনাকালীন সময়ে উপার্জনক্ষম মানুষের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান করে মানবতার উজ্জল দৃষ্টান্ত গড়েছেন তিনি। তার ওইসব কার্যক্রমে সাহায্য করেছেন চিকিৎসক, সাংবাদিক ও বন্ধুমহল কিংবা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। মানবতাবাদী এই ব্যক্তির নাম ইতিহাসের পাতায় স্বর্ণক্ষরে লেখা থাকবে বলে মনে করেন সচেতন মহল। কারো কাছে মানবতার ফেরিওয়ালা আবার কারো কাছে গরিবের বন্ধু হিসাবেই পরিচিত কক্সবাজার সদর উপজেলার পিএমখালী ইউনিয়নের ছনখোলা ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ঠিকাদার কেফায়েত উল্লাহ। যেকোনো সময়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেওয়া মানবতার সেবার আবেদনের চিত্র সামনে আসলেই এগিয়ে যান তিনি। করোনাকালীন সময়ে চাল, ডাল, তেল তুলে দেন কর্মহীন মানুষদের মাঝে। ডাক ফেলেই যে কারোর আপদে-বিপদে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তিনি। নিজের ভবিষ্যৎ অনিশ্চিত জেনেও দিনের প্রতিটি সেকেন্ড এলাকায় বা সমাজে পিছিয়ে পড়া মানুষের পিছনে সময় ব্যয় করছেন। আবার নিজেকে নিয়ে কোনদিন ভাবেনি সে। বিগত প্রায় যুগধরে দেশের মানুষের স্বার্থে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। কেফায়েত উল্লাহ জানান, নিজেকে সম্পূর্ণ লোভ লালসার উর্ধ্বে রেখে সরকারি-বেসরকারি বা বিত্তবানদের মাধ্যমে হোক না কেন ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে যেকোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, উপাসনালয়, এমনকি সমাজে পিছিয়ে থাকা গরীব অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন। সরকারি ভাতা পাওয়ার উপযুক্ত অসহায় মানুষের যে কাজ অন্য কেহ টাকা ছাড়া করে না, সে সব কাজ মানুষের দোরগোড়ায় গিয়ে বা অন্যের মাধ্যমে খোঁজখবর নিয়ে খুঁজে বের করে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে করে দিচ্ছেন সে। মানুষের সুখ শান্তি আনন্দের মধ্যে নিজের শান্তির নীড় খুঁজে পান বলে সে আরো বলেন, আত্মমানবতার সেবায় নিজেকে উৎসর্গ করেছি। আল্লাহ যতদিন তাওফিক দান করেন এলাকার মানুষের পক্ষে কাজ করে যাব ইনশাআল্লাহ।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: