শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ০৩:৩৭ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

ভারত বাংলাদেশের বন্ধু নয়, চরম শত্রু রাষ্ট্র : বাবুনগরী

  • সময় শুক্রবার, ২ এপ্রিল, ২০২১
  • ৯২ বার পড়া হয়েছে

সরকার ও হেফাজতের মধ্যে দূরত্ব সৃষ্টি নাস্তিকরা করছে দাবি করেছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির ও হাটহাজারী মাদ্রাসা শিক্ষা পরিচালক আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী।

সরকার তথা প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে তিনি বলেছেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমরা আপনার শত্রু নয়। আমরা আপনাকে সবসময় সৎ পরামর্শ দেই এবং নসিহত করি। পাশাপাশি আমরা দেশের মানুষকেও ওয়াজ মাহফিলের মাধ্যমে নসিহত করে শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষা করি। আমাদের আন্দোলন, মিটিং-মিছিল সরকার ও দেশের বিরুদ্ধে নয়। আমাদের এই আন্দোলন অন্যায়ের বিরুদ্ধে, জালেমের বিরুদ্ধে এবং নাস্তিকদের বিরুদ্ধে-যা চলতেই থাকবে।’

সম্প্রতি জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম, হাটহাজারী, ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়া ও যাত্রাবাড়ীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে মোদিবিরোধী আন্দোলন হয়। সেই আন্দেলনে পুলিশি হামলার প্রতিবাদ, নিহত ও আহতদের ক্ষতিপূরণ এবং হয়রানিমূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ ঘোষিত দেশব্যাপী বিক্ষোভ সমাবেশের অংশ হিসেবে আজ শুক্রবার জুমার নামাজের পর হাটহাজারী ডাক বাংলো চত্বরে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে হেফাজত আমীর আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী এসব কথা বলেন। এসময় হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ হাটহাজারী উপজেলা শাখার সভাপতি ও হাটহাজারী মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষা সচিব মাওলানা শোয়াইব জমিরীর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

স্বাধীন ও গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র দাবি-দাওয়া পেশ করা এবং মিছিল-মিটিং করার স্বাধীনতা আমাদের কাছে আছে দাবি করে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, ‘ওই স্বাধীনতা নিয়ে মোদি বিরোধী শান্তিপূর্ণ মিছিলে নির্বিচারে মাদ্রাসার ছাত্রদের ওপর গুলি করার কোনো অধিকার পুলিশের নাই। কোনো ওসি যদি সেদিন ছাত্রদের শান্তিপূর্ণ মিছিলে গুলি করার আদেশ দেয় সেই ওসির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে। ওই ওসি এখানে থাকতে পারে না। সেদিন আমাদের ছাত্ররা থানায় যে ইট নিক্ষেপ করেছে তার প্রমাণ কী?’

এসময় তিনি আরও বলেন, ‘ভারত বাংলাদেশের বন্ধু নয়, চরম শত্রু রাষ্ট্র। এদেশ ভারতের ইশারা-ইঙ্গিতে নয়, স্বাধীনতার ভিত্তিতে চলবে এ দেশ চলবে। এদেশকে ভারতের সনদে চলতে দিব না। প্রয়োজনে এ দেশের স্বাধীনতা রক্ষার জন্য জিহাদ করব।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে যেসব হেফাজত নেতা ও তৌহিদি জনতাকে বিনা কারণে গ্রেপ্তার করেছে তাদেরকে অতিসত্বর নিঃশর্ত মুক্তি দিতে হবে। হেফাজতের সকল নেতাকর্মী, আলেম-ওলামা ও তৌহিদী জনতাসহ যাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে তাদের ওই সব মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। হাটহাজারীতে ৩৬ জনের নামে যে মিথ্যা মামলা করা হয়েছে ওই মামলা অনতিবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে।’

বিক্ষোভ সমাবেশে আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী সম্প্রতি ঢাকার বায়তুল মোকাররম, হাটহাজারী ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও যাত্রাবাড়ীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পুলিশের গুলিতে নিহত শহীদদের ক্ষতিপূরণ ও আহতদের সুচিকিৎসার ব্যবস্থা সরকারকে করার দাবি জানান। এদিকে, বিক্ষোভ সমাবেশকে কেন্দ্র করে সহস্রাধিক আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা পৌর সদরের বিভিন্ন পয়েন্টে নিরাপত্তার জন্য অবস্থান নেয়।

এছাড়া সমাবেশ পূবর্বতী জুমার নামাজের পর থেকে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়ক এবং চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি সংযুক্ত কাচারী সড়কে পুলিশ বেস্টনি তৈরী করে যান ও জন চলাচল বন্ধ করে দেয়।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: