শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ০২:০০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পুনরায় ১০ নং গারুড়িয়া ইউনিয়নের নৌকার মাঝি হলেন

  • সময় মঙ্গলবার, ২৩ মার্চ, ২০২১
  • ১৫০ বার পড়া হয়েছে

অত্র ইউনিয়নের স্বনামধন্য চেয়ারম্যান এ এস এম জুলফিকার হায়দার

মহিবুল ইসলাম সৌরভ

বাকেরগঞ্জে আসন্ন ইউপি নির্বাচন সামনে রেখে শহর-বন্দর, গ্রাম-গঞ্জের সর্বত্র চলছে নির্বাচনী উৎসবের আমেজ। চায়ের কাপে চুমুকের সাথে তুমুল চলছে নির্বাচনী আলোচনা। আলোচনার প্রধান বিষয়বস্তু হচ্ছে- ‘পাওয়া না পাওয়ার হিসাব-নিকাশ। অতীত হাতরে কর্ম-বিচারের মাধ্যমে পছন্দের প্রার্থী যাচাই করছেন ভোটাররা। জনতার যাচাই-বাচাই প্রক্রিয়ায় দেখা যায় ইউনিয়নের সর্বসাধারণের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন মানব সেবার মধ্যে দিয়ে চেয়ারম্যান এ, এ, এম. জুলফিকার হায়দার। ছোটবেলা থেকেই মানুষের দুঃখ-দুর্দশায় এগিয়ে আসছেন তিনি। অসহায়দের পাশে থেকে বাড়িয়ে দিতেন সহায়তার কোমল দুটি হাত। গভীর দেশাত্মবোধ মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বুকে ধারণ করে নিজেকে বিলিয়েছেন মানব সেবায়।

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করে ছাত্র জীবন থেকেই নিজেকে জড়িয়েছেন ছাত্ররাজনীতিতে বাকেরগঞ্জ সরকারি কলেজে অধ্যায়ন রত অবস্থায় জাতীয় ছাত্রলীগের সদস্য ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সহ-দপ্তর সম্পাদক ছিলেন এছাড়াও এল, এল, বি, অধ্যায়ন কালীন ঢাকা ল কলেজের ছাত্রলীগের সক্রিয় সদস্য ছিলেন। ২০১১ সালে গারুড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এবং ২০১২ সালে বাকেরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব গ্রহণের মধ্য দিয়ে দলের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন তিনি। উপজেলা আওয়ামী লীগের দলীয় সকল কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ভূমিকায় দেখা যায় তাকে।

সাংগঠনিক দক্ষতার মধ্য দিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতাদের সহ জেলা নেতাদের মন করেছেন তিনি। আলহাজ্ব মোঃ কাঞ্চন আলী সিকদার সাবেক চেয়ারম্যান ১০ নং গারুড়িয়া ইউপি, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও বাকেরগঞ্জ সরকারি গার্লস স্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব মোঃ কাঞ্চন আলী সিকদারের সুযোগ্য সন্তান এ,এস, এম.জুলফিকার হায়দার। গারুড়িয়া ইউনিয়নের বিশিষ্ট শিল্পপতি সমাজসেবক, শিক্ষানুরাগী সৎ, আদর্শিক, ত্যাগী ও পরিক্ষিত সকলের আস্থা-ভাজন নেতা আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশী দল-মত-নির্বিশেষে বর্তমান সফল চেয়ারম্যান জুলফিকার হায়দার আওয়ামীলীগের নৌকার প্রতীকে দলীয় মনোনয়ন মধ্য দিয়ে পুনরায় চেয়ারম্যান হিসেবে পেতে চায় এলাকাবাসী। ইউনিয়নে বিভিন্ন উন্নয়ন সহ সকল কর্মকান্ড গণমুখী হওয়ায় সর্বস্তরের জনগণ চেয়ারম্যান হিসেবে আবারো তাকেই নির্বাচিত করতে চায়। অব্যাহত রেখেছেন ইউনিয়নের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড জনস্বার্থ রক্ষা, প্রকল্পের যথাযথ বাস্তবায়ন, কার্লভাট-ব্রিজ, রাস্তা-ঘাট, হাট-বাজার, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্ন জন-গুরুত্বপূর্ণ অসংখ্য প্রকল্প অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বাস্তবায়ন, শিশু অধিকার রক্ষা, নারীর ক্ষমতায়ন, সহনশীলতা ও পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ, সহনশীলতা, সহযোগিতাপূর্ণ মনোভাব সৃষ্টি, মানুষে মানুষে বিভেদ নিরোধের লক্ষ্যে সামাজিক বিশৃঙ্খলা সৃষ্টিকারী মামলা-মোকদ্দমা সালিশ-মীমাংসার মাধ্যমে বিবাদ নিষ্পত্তি ইত্যাদি জনমুখী উদ্যোগ বাস্তবায়নসহ অভূতপূর্ব সার্বিক উন্নয়নের অনন্য উদাহরণ সৃষ্টিতে এগিয়ে রয়েছে ১০ নং গারুড়িয়া ইউনিয়ন। তার এই কর্মের ফল হিসেবে তিনিও সর্বস্তরের ভোটারদের ভোট পেয়ে বারবার চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। এছাড়াও বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, খাদ্যবান্ধব কর্মসূচি, ভিজিডি, ভিজিএফসহ বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের কর্ম- দুর্নীতিমুক্তভাবে সফলতার সাথে সম্পন্ন করায় সাধারণ মানুষের অভাব-অনটন কমেছে বহুগুণে।

করোনাকালীন সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহার নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য প্রদানের মধ্য দিয়ে প্রশংসিত হয়েছেন তিনি। ইউনিয়নে মহামারী করোনাকালীন সময়ে লকডাউনে থাকা কর্মহীন পরিবারের মাঝে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রী নিজ অর্থায়নে বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন। নিজের জীবনের মায়া ভুলে করোনাকালীন সময়ে সকাল-বিকেল থেকে শুরু করে গভীর রাত্র পর্যন্ত ইউনিয়ন বাসীর পাশে থেকে সেবা দিয়েছেন। এধরণের অসংখ্য জনকল্যাণমূলক কর্মকাণ্ড বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে মুগ্ধ করা সততায় বিমোহিত হয়ে এ, এস, এম, জুলফিকার হায়দারের প্রতি সাধারণ মানুষের মধ্যে আস্থা বেড়েছে অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেশী। এ সব কারণেই সর্বস্তরের জনগণ চেয়ারম্যান হিসেবে তৃতীয়বার তাকেই নির্বাচিত করতে চায়। এ,এস,এম জুলফিকার হায়দার জানান, ইউনিয়ন বাসী সহ সর্ব-সাধারণের প্রত্যাশা, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ তাকে গারুড়িয়া ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দিলে তিনি নির্বাচিত হয়ে পুনরায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে নিজেকে উৎসর্গ করবেন।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: