শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ০৭:০৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

মাস্ক পরাতে আবারও প্রশাসনের অভিযান শুরু

  • সময় সোমবার, ১৫ মার্চ, ২০২১
  • ৮১ বার পড়া হয়েছে

করোনাভাইরাস প্রতিরোধী ভ্যাকসিন কর্মসূচি দেশজুড়ে পরিচালনা করা হলেও সরকারিভাবে বলা হচ্ছে করোনার মতো সংক্রামক ব্যাধি প্রতিরোধে আপাতত মাস্ক ব্যবহারের কোনও বিকল্প নেই। এদিকে, বিশ্বব্যাপী আবারও করোনাভাইরাসের প্রকোপেআবারও বেড়ে গেছে। একইসঙ্গে দেশেও করোনার সংক্রমণ হার বেড়ে যাওয়ায় সরকারিভাবে আবারও দেশজুড়ে মাস্ক পরার বিষয়ে জনসচেতনতা তৈরিতে অভিযান শুরু হয়েছে। তবে এবার কঠোরতা দেখাতে শুরুতেই করা হচ্ছে মাস্কবিহীন চলাফেরা করা লোকদের জরিমানা।

চাঁদপুর প্রতিনিধি জানান, চাঁদপুরে মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে আবারও মাঠে নেমেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। সেই সঙ্গে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়সহ সরকারি-বেসরকারি অফিসগুলোতে আবারও জোরদার হচ্ছে ‘নো মাস্ক, নো সার্ভিস’ কার্যক্রম। ১৫ মার্চ থেকে গণসচেতনতায় মাইকিংও চলবে। এরপরও মাস্ক ছাড়া কেউ বাইরে বের হলে গুণতে হবে জরিমানা।

করোনা সংক্রমণরোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের চিঠি পাওয়ার পর আবারও মাস্ক পরা নিশ্চিতে এসব কর্মসূচি জোরদার করার কথা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।

জেলা প্রশাসক বলেন, রবিবার থেকেই ভ্রাম্যমাণ আদালত মাঠে নেমেছে। এই আদালতের কাজ চলমান থাকবে। এর মাধ্যমে যাদের মুখে মাস্ক থাকবে না তাদেরকে সচেতন করবে এবং প্রয়োজনে জরিমানাও করা হবে। তথ্য অফিসকে বলেছি, গণসচেতনতা বৃদ্ধি করতে মাইকিং করার জন্য।

তিনি বলেন, আমাদের অফিসগুলোতে মাস্ক ছাড়া কেউ প্রবেশ করতে পারবে না। এছাড়া ‘ নো মাস্ক, নো সার্ভিস’ কার্যক্রম চলমান আছে। মাঝখানে কিছু দিন নজরদারি কম ছিল। তবে এখন থেকে মাস্ক নিশ্চিতে সব ধরনের কার্যক্রম চলবে।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে সবার মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক (ডিসি) ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের (ইউএনও) চিঠি দেওয়া হয়েছে। শনিবার (১৩ মার্চ) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এই চিঠি পাঠানো হয়।

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলায় মাস্ক ব্যবহার না করার দায়ে ২৩ ব্যক্তিকে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। রবিবার দুপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বি এম রুহুল আমিন এই জরিমানা করেন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, মাস্ক ব্যবহার এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আবারও বাড়ছে। করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে মাস্ক ব্যবহার ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে উপজেলার আরিচা, উথলী ও টেপড়া এলাকায় অভিযান পরিচালনা করেনভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় মাস্ক ব্যবহার ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার দায়ে ২৩ ব্যক্তিকে ১২ হাজার ৯০০ টাকা জরিমানা করা হয়।

ইউএনও বি এম রুহুল আমিন বলেন, করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে জনসমাগম ও সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে। তবে অনেকেই তা মানছেন না। অভিযান পরিচালনার মাধ্যমে জনসাধারণের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি সম্পর্কে সচেতনতাও বাড়ানো হচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: