শুক্রবার, ০৬ অগাস্ট ২০২১, ০৮:৫৬ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

কক্সবাজার- চট্টগ্রাম ঝুঁকিপূর্ণ মহাসড়কে ১ সপ্তাহে ১৫ জনের মৃত্যু:আহত শতাধিক

  • সময় রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৬৯ বার পড়া হয়েছে

এন আলম আজাদ,
কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়ক এখন মৃত্যু ঝুঁকিতে পরিণত হয়েছে।প্রতিদিন মহাসড়কের কোন না কোন স্হানে সড়ক দূর্ঘটনা ঘটছে।গত ২ দিন পূর্বে চকরিয়ার হারবাং ও বানিয়ারছড়া এলাকায় সড়ক দূর্ঘটনায় ৮ জনের ঘটনাস্থলেই মৃত্যু সহ আরো ৩০/৩৫ জন মারাত্মক আহত হয়ে চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারে সরকারি বেসরকারি হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।হ্রদয় বিদারক এ দূর্ঘটনার পরদিন ঈদগাঁও এলাকায় আরো ১ জনের মৃত্যু ঘটেছে।আজ ২৮ ফেব্রুয়ারি সকালের দিকে কক্সবাজার সদর উপজেলার ইসলামাবাদের ডুলাফকির রাস্তার মাথার মহাসড়কে ডাম্পার ও পিকআপ ভ্যানের সংঘর্ষে এক পথচারীর প্রাণ গেছে। নিহত সালাউদ্দিন বাবুল(৪৫) সদর উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের পূর্ব নাপিতখালীর আলী আহমদ প্রকাশ বাদশার মিয়া পুত্র। মালুমঘাট হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপ- পরিদর্শক নওফেল জানান, গাড়ি দুইটি জব্দ করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।একের পর এক সড়ক দূর্ঘটনার জন্য সাধারণ মানুষ যানবাহনের চালকদের বেপরোয়া গতি এবং অনভিজ্ঞতা সহ যান চলাচলে প্রতিদন্ধীতাকে দায়ী করছে।এছাড়া লাইসেন্স বিহীন লক্কড় ঝক্কড় মার্কা ডাম্পার ট্রাক-মিনিট্রাক,ছারপোকা ও কমদায়ী নয়।এর সাথে রয়েছে মহাসড়কের দীর্ঘ এ পথে প্রায় ২ শতাধিক বাঁক।এগুলোও সড়ক দূর্ঘটনার অন্যতম কারণ বলে মনে করা হচ্ছে।শুধু তাই নয়, যানবাহনের চালকরা সড়ক ও জনপথের মহাসড়কে দেয়া গতিরোধক অমান্য করে কিংবা ওভারটেকিংয়ে যান চালানোয় এসব দূর্ঘটনা ঘটছে।মহাসড়ক ক্রমেই ঝুঁকিপূর্ণতার রহস্য উৎঘাটনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ খতিয়ে দেখছে বলেও জানাগেছে।সাধারণ মানুষ ও যাত্রী সাধারণ যানবাহনের চালকদের জননিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে যানবাহনগুলো সরকারি সড়ক-মহাসড়ক আইন মেনে গাড়ি চালানোর আহবান রেখে বলেছেন তবেই নিরাপদ যাত্রী সেবা ও পথচারী সাধারণ মানুষের অমুল্য জীবন রক্ষা পাবে।ইসলামপুরে ডাম্পার ও পিকআপের মুখোমুখি সংঘর্ষে পথচারী সালাউদ্দিন বাবুলের মৃত্যুতে গভীর দুঃখ প্রকাশ করে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন ইসলামপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ- সভাপতি ঐ ইউনিয়নের আগামীর ইউপি নির্বাচনে নৌকার মনোনয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী হাসান আলী।তিনি দূর্ঘটনায় নিহত বাবুলের ৪ সন্তানের ভরণ-পোষণে সংশ্লিষ্ট যানবাহন মালিককে ক্ষতিপূরণ প্রদানের দাবীও জানিয়েছেন

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: