রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ১২:০৪ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

চেয়ারম্যানের বাড়িতে দেশীয় অস্ত্রের ভান্ডার!

  • সময় রবিবার, ২১ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৫৭ বার পড়া হয়েছে

কুমিল্লায় ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়িতে মিললো দেশীর অস্ত্রের ভান্ডার। শনিবার ভোরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই ইউপি চেয়ারম্যানে বাড়ি থেকে পাইপ গান, রামদা, রব, বল্লম, চাইনিজ কুড়ালসহ বিভিন্ন দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে। ওই ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীকে মেঘনা উপজেলার বাউরখোল ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত চেয়ারম্যান।
শুক্রবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) কুমিল্লার মেঘনায় আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা সিরাজ মিয়ার ভাইয়ের বাড়িতে হামলা ও নারী নিহতের ঘটনার পর সন্ত্রাসী ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণে এই দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করে মেঘনা থানা পুলিশ।
ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসির সন্ত্রাসী হামলায় নিহত উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সিরাজ মিয়ার বড়ভাই আব্দুর সালামের স্ত্রী নাজমা আক্তার (৪৫)। নিহতের মরদেহ ময়নাতদন্তের শেষে শনিবার দুপুরে তার বাড়ি ভাওরখোলা গ্রামে দাফন করা হয়ছে। উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সিরাজ মিয়ার বড়ভাই আব্দুর সালামের স্ত্রী। ওই হামলায় সিরাজ মিয়া, ভাই সালামসহ আরও ১৫ জন ব্যাক্তি আহত হয়।
ওই সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা তনদন্ত করতে গিয়ে শনিবার ভোররাতে হোমনা সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. ফজলুল করিমের নেতৃত্বে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যানের ফারুক বাড়িতে অভিযান চালিযয়ে বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
স্থানীয় আওয়ামী লীগের কয়েকজন নেতাকর্মী জানায়, মেঘনা উপজেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সিরাজ মিয়ার ভাতিজির বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন হয় বাউরখোলের গ্রামের বাড়িতে। পূর্বের রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণে সিরাজ মিয়াকে দীর্ঘদিন এলাকায় আসতে দেননি সন্ত্রাসী ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসি। খবর পেয়ে সেখানে দলবল নিয়ে সশস্ত্র হামলা চালায় একাধিক মামলার আসামি ফারুক। এ ঘটনায় সিরাজ মিয়ার ভাইয়ের স্ত্রী নাজমা আক্তার নিহত হন। এতে এলাকার অবস্থা থমথমে হয়ে পড়ে। এ হত্যার ঘটনায় এলাকাবাসী বিােভে ফেটে পড়েন। পরে শুক্রবার দিবাগত রাত থেকে আজ শনিবার ভোর পর্যন্ত মেঘনা থানা পুলিশ অভিযান চালায় ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসির বাড়িতে। সেখান থেকে কয়েক শতাধিক দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। অস্ত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে দুটি দেশীয় পাইপ গান, রামদা, রব, বল্লম, চাইনিজ কুড়ালসহ বিভিন্ন ধরনের দেশীয় অস্ত্র। এ ব্যাপারে হত্যার ঘটনায় একটি ও অস্ত্র আইনে একটিসহ দুটি মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে নিম্চিত করেন মেঘনা থানার ওসি মো. আব্দুল মজিদ।
তিনি জানান, হত্যার ঘটনায় নিহতদের পরিবার বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। রাতভর অভিযান চালিয়ে বিপুল পরিমাণ দেশীয় অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসিসহ তার সাথে যারা জড়িত রয়েছেন তাদের বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে। চেয়ারম্যান ফারুক আব্বাসি পলাতক রয়েছে। তাকে এবং জড়িত অন্যদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
c-link

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: