রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৫:১৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

৫ দিন ধরে পৌরসভার লাইনে পানি নেই : সর্বত্র হাহাকার

  • সময় বুধবার, ৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৫০ বার পড়া হয়েছে

পৌরসভার লাইনে পানি নাই তাই ৫ দিন ধরে পানির জন্য হাহাকার অবস্থা বিরাজ করছে শহরের বুহত্তর টেকপাড়া সহ পৌর এলাকার বিভিন্ন এলাকায়। এতে চরম ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছেন পৌর এলাকার নাগরিকরা।

এদিকে পানি না থাকায় রান্না সহ নিত্যপ্রয়োজনীয় কাজ করতে না পারায় চরম বেকায়দায় পড়েছেন কয়েক হাজার নাগরিক।

কক্সবাজার শহরের টেকগাড়ার বাসিন্দা আবুল কালাম জানান,গত কয়েকদিন ধরে বাড়িতে পৌরসভার লাইন থেকে পানি আসছে না। এতে ঘরের মহিলারা সহ আমরা সবাই খুবই বিপদের মধ্যে আছি। খাবার পানি হয়তো টাকা দিয়ে বাইরে থেকে আনা যায় কিন্তু নিত্যদিনের ব্যবহারের পানি কিভাবে বাইরে থেকে আনবো ? এতে চরম অসুবিধার মধ্যে আছি এর মধ্যে পৌরসভার পানি বিভাগের কর্মচারীদের ফোন করে জানালে তারা বলেছে রাস্তার কাজ করতে গিয়ে উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ আমাদের পানির পাইপ কেটে ফেলেছে তাই পানির পাম্প চালাতে পারছি না।

একই এলাকার রোকসানা আকতার বলেন, ৫ দিন ধরে পৌরসভার লাইনে পানি আসছে না। আমাদের বিকল্প কোন পানির ব্যবস্থা নাই এখন বাড়িতে অনেকটা দূর্যোগের পরিবেশ বিরাজ করছে। মাঝে মধ্যে লাইনে পানি আসলেও তা বিকট দূর্গন্ধ ফলে সেটা ব্যবহার করতে পারছি না।

ছেলেমেয়েদের গোসল থেকে শুরু করে বাথরুম ব্যবহার করার জন্য পানি পাচ্ছি না । এটা কেমন কর্তৃপক্ষ যে নাগরিকদের কথা না ভেবে এভাবে মানুষকে কষ্ট দিচ্ছে। তারাবনিয়ারছড়ার মোহাম্মদ রাসেল বলেন,পানি না থাকলে কি কষ্ট সেটা কাউকে বলে বুঝানো যাবে না। আমি থাকি ৩ তলার ফ্ল্যাটে আমাদের বাড়িতে পানির একমাত্র উৎস পৌরসভার পানি। কিন্তু গত এক সপ্তাহ ধরে পানি না থাকায় ঘরের স্ত্রী এবং মেয়েদের করুন দশা দেখে বাড়িতেই যেতে মন চাইছে না। বর্তমানে ৩০০ টাকা দিয়ে বাইরে থেকে পানি এনে ব্যবহার করছি। আর পৌরসভাকে জানালে তারা কোন পাত্তায় দেয়না। আর যে দেশে নাগরিকদের কোন মর্যাদা নাই সে দেশে কি আর করা। উন্নয়ন করবে ভাল কথা কিন্তু সেটাতো সমন্নয় থাকতে হবে। আর কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষরাস্তার কাজ করছে সেটা দেখলে মৃত মানুষও জীবিত হয়ে উঠবে। ১ মাসের বেশি সময় ধরে এখনো কিছু গর্ত করেছে মাত্র। কাজ করে ৪/৫ জন লেবার দিয়ে। আর ৫/৬ দিন ধরে মানুষ পানি পাচ্ছেনা সেটাকি আসলেই কর্তৃপক্ষ জানেনা নাকি নাগরিকদের প্রয়োজন নাই বলে পাত্তা দিচ্ছেনা।

এদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পৌরসভার এক কর্মচারী বলেন,যেই পাইপ কেটে গেছে সেখানে মেরামতের জন্য জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অফিসকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তবে উনারা এখনো কাজ করছে না।

এ ব্যাপারে কক্সবাজার পৌরসভার পানি শাখার দায়িত্বে থাকা প্রকৌশলী টিটন দাশ বলেন,শহরের রুমালিয়ারছড়া এলাকায় কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ রাস্তার কাজ করতে গিয়ে পৌরসভার পানির পাইপ কেটে ফেলেছে তাই পৌরসভার পানির পাম্প চালাতে পারছিনা এতে মানুষ পানি পাচ্ছেনা। সে বিষয়ে আমাদের মেয়র সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেছে বলে জেনেছি।

এদিকে কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সচিব আবু জাফর মোঃ রাশেদ বলেন, পানি না পাওয়ার বিষয়টি দুঃখ জনক বিষয়টি আমি চেয়ারম্যান মহোদয়ের সাথে কথা বলে দেখছি কি করা যায়।

c-link

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: