শুক্রবার, ২২ জানুয়ারী ২০২১, ০৯:২২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ায় আপনাকে স্বাগতম

সাংবাদিক এম এ সাত্তারকে প্রাণনাশের হুমকি, থানায় জিডি

  • সময় মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০
  • ৮৭ বার পড়া হয়েছে

আলোকিত রিপোর্টঃ

সাংবাদিক এম এ সাত্তারকে পিএমখালীর ছনখোলা এলাকার মোহাম্মদ নবীর পুত্র নেজাম উদ্দিন নামের এক প্রতারক, উচ্ছৃঙ্খল যুবক প্রাণ নাশের হুমকি প্রদান করায় ভবিষ্যত নিরাপত্তার স্বার্থে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী লিপিবদ্ধ করেছেন।

জানাযায়, গত ২৩ নভেম্বর দুপুর অনুমান ২ টার সময় বাংলাবাজার ভাই ভাই ভাতঘর লাগোয়া মেসার্স ছৈয়দ মেডিকোতে নেজাম উদ্দিনের নেতৃত্বে ৫ থেকে ৬ জন ব্যক্তি মিলে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে কোনো কারণ ছাড়াই দৈনিক কক্সবাজার বার্তার ‘বিশেষ প্রতিবেদক’ সাংবাদিক এম এ সাত্তারকে মারতে আসেন। ওই সময় নেজাম জোর গলায় চিৎকার দিয়ে এই সাত্তার সাংবাদিকতা করতে পারবেনা, সাংবাদিকতা ছাড়াবো, তুই মানুষের বিরুদ্ধে লিখিস, চিরতরে তুরে শেষ করে দিব এমন অকথ্যভাষায় গালি করতে করতে শারীরিকভাবে আঘাত করার প্রস্তুতি নিতে থাকে।

এমন সময় উপস্থিত স্থানীয় চেয়ারম্যান মাস্টার আবদুর রহিম এবং উপস্থিত আরো মানুষের বাধার মুখে চলে যেতে বাধ্য হয় নেজাম গং। এম এ সাত্তার বলেন, নেজাম উদ্দিন ওই সময় আমাকে আঘাত আর প্রাণে মেরে ফেলতে না পেরে চলে যাওয়ার সময় প্রকাশ্যে হুমকি দিয়ে বলে যায় রাতের আঁধারে মেরে লাশ গুম করে ফেলবে। তিনি বলেন, ভবিষ্যতের নিরপত্তা এবং আশঙ্কায় কক্সবাজার সদর মডেল থানায় সাধারণ ডায়েরী করেছেন আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের প্রয়োজনে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানাযায়, নেজাম উদ্দিন একজন প্রতারক, অবৈধ কারবারি। এলাকার নিরীহ সহজ সরল মানুষকে বিভিন্নভাবে ভয় ভীতি দেখিয়ে হয়রানি করার পাশাপাশি সাধারণ মানুষের উপর অত্যাচার নির্যাতন চালানোর অনেক নজির আছে। প্রচার আছে বিভিন্ন পক্ষের হয়ে ভাড়া কেটে ভয়ভীতি দেখিয়ে ইনকাম করা তার পেশা এবং নেশা।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অপারেশন অফিসার সেলিম উদ্দিন জিডির বিষয়ে বলেন, এম এ সাত্তারের জিডি গ্রহণ করা হয়েছে। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উল্লেখ্য, সাংবাদিক সংসদ কক্সবাজার এর নির্বাহী সদস্য এম এ সাত্তার দৈনিক আজকের কক্সবাজার বার্তা’র ‘বিশেষ প্রতিবেদক’ পাশাপাশি অনলাইন নিউজ পোর্টাল কক্সবাজার ভয়েস’র বিশেষ প্রতিনিধি এবং চট্টগ্রাম ট্রিবিউন এর জেলা প্রতিনিধি হিসেবে সুনামের সহিত কাজ করে যাচ্ছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: