৪১ বছরে ‘বাহুবলী’ প্রভাস

৪১ বছরে ‘বাহুবলী’ প্রভাস

‘বাহুবলী’খ্যাত তারকা প্রভাসের ভক্ত শুধু ভারতে নয়, বিশ্বজুড়েই রয়েছে। তাই শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) তার ৪১তম জন্মদিনে ভক্ত-অনুরাগীদের শুভেচ্ছা-উচ্ছ্বাস যেন বাঁধ ভেঙেছে অন্তর্জালে।

প্রভাসের পুরো নাম উপ্পলপতি ভেঙ্কট সূর্যনারায়ণ প্রভাস রাজু। ১৯৭৯ সালের ২৩ অক্টোবর তার জন্ম। মূলত তেলুগু সিনেমার অভিনেতা তিনি। ২০০২ সালের তেলেগু অ্যাকশন ড্রামা ‘ঈশ্বর’ সিনেমার মধ্য দিয়ে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে অভিষেক হয় তার। ‘মিরচি’ সিনেমায় অনবদ্য অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেতা হিসেবে সম্মানজনক নন্দী অ্যাওয়ার্ড লাভ করেন। তিনিই প্রথম দক্ষিণ ভারতীয় অভিনেতা যার মোমের মূর্তি স্থান পেয়েছে মাদাম তুসোর জাদুঘরে।

প্রভাস অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমার মধ্যে রয়েছে ‘বর্ষম’ (২০০৪), ‘ছত্রপতি’ (২০০৫), ‘চক্রম’ (২০০৫), ‘বিল্লা’ (২০০৯), ‘ডার্লিং’ (২০১০), ‘মি. পারফেক্ট’ (২০১১), ‘মিরচি’ (২০১৩)। তবে প্রভাসের সবচেয়ে বড় কাজটি হলো এস এস রাজামৌলির মহাকাব্যিক সিনেমা ‘বাহুবলী’। ‘বাহুবলী: দ্য বিগিনিং’ (২০১৫) ভারতের সর্বকালের চতুর্থ সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমা। তুমুল উত্তেজনা নিয়ে প্রভাস একই নামরূপে বড়পর্দায় আবির্ভূত হন ‘বাহুবলী: দ্য কনক্লুশন’ (২০১৭) সিনেমায়। এ সিনেমাটি ভারতবর্ষের প্রথম সিনেমা যা মুক্তির মাত্র দশদিনেই ১ হাজার কোটি রুপি আয় করে নেয়। ভারতের সর্বকালের সর্বোচ্চ আয়ের সিনেমাগুলোর মধ্যে এটি রয়েছে দ্বিতীয় স্থানে। আর প্রথম স্থানে রয়েছে আমির খানের ‘দঙ্গল’।

বাহুবলীর পর প্রভাসের একটিমাত্র সিনেমা মুক্তি পেয়েছে ‘সাহো’। এটি ভারতের তৃতীয় সর্বোচ্চ ব্যববহুল সিনেমা যার বাজেট ছিল ৩৫০ কোটি রুপি। প্রভাস এখন কাজ করছেন ‘রাধে শ্যাম’ সিনেমায়।
c-link

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: