রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ০৭:৫০ পূর্বাহ্ন

বদরখালী সেতুতে সড়ক দুর্ঘটনায় আরও ১ জনের মৃত্যু

  • সময় মঙ্গলবার, ৬ অক্টোবর, ২০২০
  • ৫৫ বার পড়া হয়েছে

মহেশখালী-বদরখালী সংযোগ সেতুতে ডাম্পার গাড়ির সাথে টমটমের (ইজিবাইক) মুখোমুখি সংঘর্ষের ঘটনায় মারাত্মক আহত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মোঃ রশিদ (২৬) নামে আরো এক যাত্রী মারা গেছে।

ঘটনাস্থলে তাৎক্ষণিক নিহত আব্দুল খালেক (১৫) নামের ১ জন টমটম যাত্রীসহ এ পর্যন্ত ২ জন নিহত ও ৪ জন আহত হয়েছে।
৫ অক্টোবর বিকেল ৫টায় মহেশখালী বদরখালী সংযোগ সেতুর উপর এ ঘটনা ঘটে। এ নিয়ে গত ৬ দিনই মহেশখালী চকরিয়া সড়কের ডাম্পার গাড়ি চাপায় ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও এলাকাবাসীরা জানান, ৫ অক্টোবর বিকেল ৫ টায় চকরিয়া মহেশখালী সড়কের মহেশখালী বদরখালী সেতুর উপর মহেশখালী থেকে আসা বেপরোয়া গতির ডাম্পার গাড়ি (চট্ট মেট্রো- ড- ১১-৬৯৪৪) বদরখালীর দিক থেকে যাওয়া ব্যাটারি চালিত একটি টমটমকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই কিশোর আব্দুল খালেক নিহত হয়। এ ঘটনায় ইজি বাইকের অপর ৪ যাত্রী আহত হয়। আহতদেরকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে চকরিয়া ও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেছে।

এদের মধ্যে টমটমের চালক কালারমারছড়া ইউনিয়নের মাইজ পাড়া গ্রামের মোহাম্মদ রশিদ (২৬) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল ভোররাতের ২টার দিকে মারা যায়। তিনি উক্ত গ্রামের আব্দু শুক্কুর এর পুত্র বলে জানা গেছে। গতকাল সকাল ১১ টায় মাইজ পাড়া গ্রামে নিহতের জানাযা সম্পন্ন হয়েছে।

এলাকাবাসীরা জানান, ইদানিং চকরিয়া মহেশখালী সড়কে মাতারবাড়ি কয়লা বিদ্যুৎ কেন্দ্র ও মহেশখালী সড়ক উন্নয়নের কাজে মাটি ও বালি পরিবহনে নিয়োজিত ডাম্পার গাড়ি গুলি অদক্ষ চালক দ্বারা ব্যবহৃত হওয়ায় প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা ঘটেছে। এ সড়কে গত ৩০ সেপ্টেম্বর চকরিয়ার মাইজ ঘোনা নামক স্থানে মহেশখালী কালারমারছড়া ইউনিয়ন এর উত্তর ঝাপুয়া গ্রামের মোক্তার আহমদ চৌধুরীর পুত্র সিএনজি আরোহী গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী ভুট্টু ডাম্পার গাড়ি চাপায় নিহত হয়। এ নিয়ে গত ছয় দিনে মহেশখালী চকরিয়া সড়কে বাস চাপায় ৩ জনের প্রাণহানি ঘটে।

ঘটনাস্থলে নিহত কিশোর চালিয়াতলী গ্রামের মৃত মোজাফফর আহমদের পুত্র আব্দুল খালেকের খালাতো ভাই চট্টগ্রাম কলেজের ইতিহাস বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র মাহমুদুল করিম আজাদ জানান, নিহত আব্দুল খালেক নিতান্ত গরিব পরিবারের ছেলে। ছোটবেলায় বাবা মারা যাওয়ায় দুই বোন ও মা রেনু আরা বেগমের সংসার চালাতে কিশোর বয়সে সেও ইজিবাইক চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো। তবে সে গতকাল তার পরিচিত অপর ইজিবাইক ড্রাইভার মোহাম্মদ রশিদের গাড়িতে করে বদরখালী বাজার থেকে ফেরার পথে দুর্ঘটনার শিকার হয়।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: