শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ০১:৫৯ পূর্বাহ্ন

গুলশানে বিএনপি নেতাকর্মীদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, আহত ১২

  • সময় শনিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৫৮ বার পড়া হয়েছে

রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ের সামনে দুই গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সং’ঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে ১০-১২ জন নেতা-কর্মী আ’হত হয়েছেন বলে জানা গেছে। ওই অফিসের আশপাশে বিপুল পরিমাণ পু’লিশ ও র‌্যা’­ব সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টার দিকে এ ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, শনিবার বিকেল ৫টায় উপ-নির্বাচনে বিএনপির মনোনয়ন প্রত্যাশীদের ভা’র্চুয়াল সাক্ষাৎকারের জন্য ডাকে দলটি। কিন্তু তার আগেই সেখানে কফিল উদ্দিন ও জাহাঙ্গীরের সম’র্থকরা জড়ো হন। এস এম জাহাঙ্গীরের বিভিন্ন অ’পকর্মের বি’রুদ্ধে কফিল উদ্দিনের সম’র্থকরা স্লোগান দিতে থাকলে প্রথমে কথা কা’টাকাটি ও পরে তা সং’ঘর্ষে রূপ নেয়।

এর আগে ঢাকা-১৮ আসনের উপনির্বাচনে যুবদল নেতা এস এম জাহাঙ্গীরকে মনোনয়ন না দিতে দলের হাইকমান্ডের কাছে লিখিত আবেদন জানিয়েছেন ঢাকা-১৮ নির্বাচনী এলাকার বিএনপি সম’র্থিত আট কাউন্সিলর প্রার্থী। তারা হলেন- ১নং ওয়ার্ডের মোস্তাফিজুর রহমান সেগুন, ৫০নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী দেওয়ান মোহাম্মাদ নাজিম উদ্দিন, ৪৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মো. আনোয়ার হোসেন আয়নাল, ৪৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মোতা’লেব হোসেন রতন, ৪৬নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আরিফুর রহমান আরিফ, ৪৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মো. আক্তার হোসেন, সংরক্ষিত ৫২, ৫৩ ও ৫৪ ওয়ার্ডের প্রার্থী সোহেলী পারভীন শিখা এবং সংরক্ষিত ৪৯, ৫০ ও ৫১ ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী লুৎফা খানম চৌধুরী।

তারা লিখিত ভাবে বলেন, এসএম জাহাঙ্গীর এলাকায় বিএনপির সঙ্গে সংশ্লিষ্টতা নেই। তিনি আওয়ামী লীগের সাথে আঁতাত করে রাজনীতি করেন। এলাকার নির্যাতিত নেতা-কর্মীরা তার দ্বারাও নানাভাবে হে’নস্তা ও নি’র্যাতনের শিকার। এছাড়া তিনি চাঁদাবাজির সাথে জ’ড়িত।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান বলেন, দুপক্ষ নেতাকর্মীদের কথার কা’টাকাটি হয়েছে। তেমন বড় কিছু হয়নি।

গুলশান থা’নার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল হাসান জানিয়েছেন, দুপুরে বিএনপির কার্যালয়ের সামনে দুই গ্রুপের মধ্যে সং’ঘর্ষ শুরু হয়।এতে বেশ কয়েকজন আ’হত হয়েছেন। পরে ওই অফিসের আশপাশে বিপুল পরিমাণ পু’লিশ ও র‌্যা’­ব সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। অ’তিরিক্ত পু’লিশ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: