৩০ বছর ধরে এক শার্ট পরছেন ডা. জাফরুল্লাহ, প্যান্টেও তালি!

৩০ বছর ধরে এক শার্ট পরছেন ডা. জাফরুল্লাহ, প্যান্টেও তালি!

জাফরুল্লাহ চৌধুরী। মহান মুক্তিযুদ্ধের কিংবদন্তি যোদ্ধা। প্রখ্যাত ডাক্তার। রণাঙ্গনে ফিল্ড হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করে অসংখ্য আহত ও অসুস্থ মুক্তিযোদ্ধার চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন। স্বাস্থ্য সেবায় নিয়োজিত থেকে ইতিহাসে নাম লিখিয়েছে ‘স্বাস্থ্যযোদ্ধা’ হিসেবে।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি এই ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীই কিনা একটি শার্ট পরছেন প্রায় ৩০ বছর ধরে। এছাড়া তার পরনের প্যান্টেও রয়েছে তালি। অবিশ্বাস্য মনে হলেও ঘটনা সত্য।

গত শুক্রবার এক গণমাধ্যমকর্মীর সঙ্গে এক আলাপচারিতায় তিনি এ কথা বলেন। অভিজাত পরিবারের সন্তান হয়েও সাধারণ জীবন-যাপন নিয়ে প্রশ্নের জবাবে জাফরুল্লাহ চৌধুরী তথ্য জানান। এ সময় তার পরনে ছিল সাদা ও হালকা বেগনি চেকের জামা। এ জামা পরে বিভিন্ন সময়েই তাকে দেখা গেছে।

এর জবাবে জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, দেশের মানুষের অর্থনৈতিক অবস্থা দেখে তিনি সাধারণ বেশভূষায় চলতে পছন্দ করেন।

তিনি বলেন, লন্ডনে থাকা অবস্থায় সেখানকার রাজ পরিবারের প্রিন্স চার্লস যে টেইলারে স্যুট সেলাই করতেন, তার স্যুটও সেখানকার দর্জি সেলাই করে দিত। এসে তার জামার মাপ নিয়ে যেত।

তবে বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধকালীন ও পরবর্তী পরিস্থিতি তুলে ধরে জাফরুল্লাহ চৌধুরী তার শার্ট ও প্যান্ট পরা, জীবনাচরণের ব্যাখ্যা দেন। তিনি বিভিন্ন ঘটনাও উল্লেখ করেন।

এদিকে সম্প্রতি একটি একটি জাতীয় দৈনিকে দেয়া সাক্ষাৎকারে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন, করোনা পরীক্ষার অ্যান্টিবডি কিটের অনুমোদন না দেয়া বড় অংকের আর্থিক লোকসানে পড়ে ফতুর হয়ে গেছেন তিনি।

তিনি বলেন, বিশ্বের অনেক দেশ আগ্রহ দেখিয়েছিল এই অ্যান্টিবডি নেয়ার। ব্যাংকগুলো ডেকেছিল টাকা দেওয়ার জন্য; কিন্তু এখন আর কেউ টাকা দিতে চায় না। আমার ১০ কোটি টাকার লোকসান হয়েছে। আমি ফতুর হয়ে গেছি। তারা মনে করে, আমি তো আর হাসপাতাল বন্ধ করে দেব না; দিতে হতেও পারে। আমরা টায়ার্ড হয়ে গেছি। তাদের কোনো ন্যায়নীতির কথা বোঝানো যায় না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: