বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন

খরুলিয়ায় গভীর রাতে অস্ত্র ঠেকিয়ে গরু লুট!

  • সময় রবিবার, ৩০ আগস্ট, ২০২০
  • ৭৮ বার পড়া হয়েছে

শাহীন রাসেল, কক্সবাজার:
কক্সবাজার সদরের খরুলিয়ায় গরুর গোয়াল থেকে বাছুরসহ ৩টি গরু নিয়ে যায় বলে জানা গেছে। গরু নিয়ে যাওয়ার সময় পথচারীরা বাঁধা দিলে অস্ত্র ঠেকিয়ে গরুর সাথে তাদেরও মোবাইল টাকা লুট করে নিয়ে যায় বলে দাবী করেছেন তারা।
শনিবার (২৯ আগস্ট) গভীর রাতে ঝিলংজা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মেহের আলী পাড়ার মাহাবু রহমানের বাড়ীর গোয়াল ঘর থেকে এসব গরু নিয়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটে। লুট হওয়া ৩টি গরুর মধ্যে ২টি গাভী একটি বাছুরও রয়েছে।
গরুর মালিক মাহবু জানান, শনিবার রাতে গরুগুলোকে খাবার খাইয়ে তিনি পরিবারের সদস্যদের নিয়ে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত চারটার দিকে ঘুম থেকে জেগে দেখেন গোয়ালে গরু নেই। চোরেরা বাছুরসহ গাভি দুটি নিয়ে গেছে। সকাল বেলা তিনি জানতে পারেন, গরু নিয়ে যাওয়ার সময় সিকদার পাড়া এলাকার মৃত আয়ুব আলীর ছেলে আবছার কামাল রাস্তায় তাদের বাঁধা দেন। এসময় তার মাথায় অস্ত্র ঠেকিয়ে গরুরসাথে তার মোবাইল টাকাও নিয়ে যায়। এসময় তারা একটি মিনি ট্রাকে করে গরু নিয়ে যায় বলে আবছার জানিয়েছেন।
সদরে গরু চোরের উপদ্রব বৃদ্ধি পাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন এলাকার খামারি ও প্রান্তিক কৃষকেরা। গত এক কয়েক মাসের ব্যবধানে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় ৫০টিরও বেশি গরু চুরি হয়েছে বলে জানা গেছে।
গ্রামাঞ্চলে গরু চুরির ঘটনা বেড়ে যাওয়ায় সাধারণ কৃষকের পাশাপাশি এলাকার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক খামারিরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। অনেকেই রাত জেগে গরু পাহারা দিচ্ছেন। সম্প্রতি একের পর এক গরু চুরির ঘটনা ঘটলেও ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়েছে চোর চক্রের সদস্যরা।
ঝিলংজার ইউপি চেয়ারম্যান টিপু সুলতান বলেন, সদরের গ্রামগুলি থেকে বেশ কয়েক মাস ধরে একের পর এক হালের গরুসহ গাভী ও মহিষ চুরি হয়ে যাচ্ছে। চোরের উৎপাতে মানুষ অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। কোনভাবেই কমছে না গরু চুরির প্রবণতা। সংঘবদ্ধ চোরের দল ট্রাক, কাভার্ড ভ্যান যোগে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের দুপাশের বাড়িঘর তাদের প্রধান টার্গেট হিসেবে বেছে নিয়েছে। অঞ্চল ভিত্তিক পুলিশ ফাঁড়ি, থানা থাকা সত্ত্বেও গরু চুরি বন্ধ হচ্ছে না।
তবে পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, গরু চুরির ব্যাপারে থানায় প্রায়ই সাধারণ ডায়েরি করতে আসেন ভুক্তভোগীরা। তবে গরু চুরির ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা মামলায় আগ্রহী না হওয়ায় এবং চোর শনাক্তকরণে আমরাও বিপাকে পড়ি। তবে সম্প্রতি গরু চুরির ঘটনায় আমরা চোরচক্রকে শনাক্ত করতে কার্যক্রম শুরু করেছি।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: