মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন

পর্ব ৩

হুন্ডি ব্যবসায়ী রায়হান বহালতবিয়তে, প্রশাসনের এতো অভিযানে অধরা কেন? জনমনে প্রশ্ন

  • সময় শুক্রবার, ২১ আগস্ট, ২০২০
  • ১৮৩ বার পড়া হয়েছে

ক্রাইম রিপোর্ট:
টেকনাফের হোয়াইক্যং ইউপির কানজর পাড়ার আব্দুর রশিদের পুত্র সমালোচিত রায়হানের হুন্ডির ব্যবসা করার কারণে বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় ঢালাওভাবে নিউজ আসার পরেও প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে কিভাবে হুন্ডির মাধ্যমে অবৈধ টাকা পাচারে বহালথাকে, এখন জনমনে প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে!অবৈধ ইয়াবা ব্যবসায়ীদের কালো টাকা হুন্ডির মাধ্যমে রায়হান পাচার করার কারণে ইয়াবা ব্যবসায়ীরা তাদের এমন ঘৃণ্যতম ব্যবসা চালিয়ে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে,এধরণের হুন্ডি ব্যবসায়ীদের যদি আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির মুখোমুখি করা না হয়, তাহলে রায়হানদের মতো আরো শত শত হুন্ডি ব্যবসায়ী জন্ম নেবে,এবং ইয়াবা ব্যবসায়ীরা রায়হানদের মতো হুন্ডি ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে ইয়াবার কোটি কোটি কালো টাকা পাচার করবেই।হুন্ডি ব্যবসায়ীরাই উখিয়া টেকনাফের জন্য এখন বিষফোঁড়া হিসেবে পরিণত হয়েছে, এবং এমন হুন্ডি ব্যবসায়ীদের যদি গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা না হয়, তাহলে উখিয়া টেকনাফ ইয়াবার স্বর্গরাজ্য থেকে-ই যাবে,এমন ধারণা করেছেন সুশীল সমাজ।রায়হানের মতো যারা হুন্ডির মাধ্যমে টাকা পাচার করে,অবৈধ ইয়াবা ব্যবসায়ীরা তাদের কাছে আশ্রয় নেয় টাকা পাচারের জন্যে।সহজেই ইয়াবার অবৈধ টাকা পাচারের সুবিধা লুটে নেয় মাদক কারবারীরা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একাধিক ব্যক্তি”দৈনিক আলোকিত উখিয়া”কে জানান,ইয়াবা ব্যবসায়ীদের মূল আশ্রয় দাতা হলো,বিকাশের দোকান সামনে রেখে, পেছনে পেছনে ইয়াবার অবৈধ টাকা পাচার কারী রায়হানের মতো হুন্ডি ব্যবসায়ীরা,এবং এদের গ্রেফতার করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন, স্থানীয় সচেতন মহল। এব্যাপারে তার কাছে জানতে চাইলে, সে নিজেকে ব্যবসায়ী বলে দাবি করেন,এসব কাজে জড়িত নয় বলে জানান

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: