শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:১৭ অপরাহ্ন

‘বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন’ নিলেন পুতিনের মেয়ে

  • সময় মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ৬৪ বার পড়া হয়েছে

রাশিয়ায় তৈরি ‘বিশ্বের প্রথম করোনা ভ্যাকসিন’ দেয়া হয়েছে দেশটির প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের এক মেয়েকে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পুতিন নিজেই। রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সম্প্রচারমাধ্যম আরটি’র ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যৌথভাবে এই ভ্যাকসিন তৈরি করেছে গামালেয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট। এদিকে রাশিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী মিখাইল মুরাশকো’র বরাতে স্পুটনিক নিউজ সম্প্রতি জানায়, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের তৃতীয় পর্যায়ে থাকা ভ্যাকসিনটি ১২ আগস্টের মধ্যে অনুমোদন পাবে।

এ বিষয়ে প্রেসিডেন্ট পুতিন জানান, মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে তারা ভ্যাকসিনটির ব্যাপারে সবুজ সংকেত পেয়ে গেছেন। এখন তারা গণহারে এটির উৎপাদন শুরু করবেন। তিনি আরও জানান, তার দুই মেয়ের একজন দুটি টিকা নিয়েছেন। সে ভালই আছে বলে জানান তিনি। ভ্যাকসিন প্রয়োগের তার মেয়ের শারীরিক অবস্থা নিয়ে পুতিন জানান, প্রথম ভ্যাকসিন ইনজেকশনের দিনে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস (১০০.৪ ফারেনহাইট) তাপমাত্রা ছিল এবং পরের দিন কমে তা ৩৭ ডিগ্রি (৯৮.৬ ফারেনহাইট) নেমে এসেছিল। দ্বিতীয়বার নেয়ার পর আবার তাপমাত্রায় কিছুটা বৃদ্ধি হয়েছিল, কিন্তু কিছুক্ষণ পরেই তা কমে আসে।

এ মাসের শুরুতে (১ আগস্ট) রাষ্ট্রীয় রুশ বার্তা সংস্থা আরআইঙ্কে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, অক্টোবর মাস থেকে জনগণকে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হবে। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে রাশিয়াকে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন উদ্ভাবনে আন্তর্জাতিক নির্দেশনা অনুসরণ করার আহ্বান জানানো হয়।

এর আগে গত মাসের ১২ জুলাই রাশিয়ার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, গামালেই ইনস্টিটিউট অব এপিডেমোলজি অ্যান্ড মাইক্রোবায়োলজির উদ্ভাবিত ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল সফলভাবে শেষ করেছে তারা। ২২ জুলাই (বুধবার) রুশ সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়, তাদের ভ্যাকসিনটি প্রস্তুত।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: