মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, ০৬:২৭ পূর্বাহ্ন

গলাচিপায় নির্বাহী কর্মকর্তার নির্দেশে সরকারী জমিতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু!

  • সময় মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০
  • ১২১ বার পড়া হয়েছে

মু. জিল্লুর রহমান জুয়েল পটুয়াখালী জেলা প্রতিনিধি।।

পটুয়াখালীর গলাচিপায় সরকারী খাস জমির উপর নির্মিত অবৈধ একাধিক ঘর উচ্ছেদ করেছে উপজেলা প্রশাসন। এ অভিযান পরিচালনা করেন সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. নজরুল ইসলাম। ১০ আগস্ট রোজসোমবার বেলা ১১ টার সময় উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের নলুয়াবাগী গ্রামে এই অভিযান পরিচালনা করেন। জানা গেছে, উপজেলার গোলখালী ইউনিয়নের নলুয়াবাগী গ্রামে সরকারী খাস জমির উপর প্রভাবশালীরা অবৈধভাবে দোকান ঘর নির্মান করেন। দোকান ঘরগুলোর প্রতিবেদন পত্রিকায় প্রকাশিত হলে প্রশাসনের নজরে আসলে উপজেলা প্রশাসন অবৈধ দোকানপাট ঘরগুলো ভেঙ্গে দেওয়ার নির্দেশ দেন। এবিষয় ভুক্তভোগী প্রতিবেদ’কে জানায়,সরকারী খাস জমিতে প্রশাসন উচ্ছেদ অভিযান করছে কিন্তু আমার জমি নিয়ে ঢালী বাড়ীর সাথে যে বিরোধ সেটা কিন্তু রয়েই গেল। আমার জমির উপরের ঘড় এখন পর্যন্ত ভাংঙ্গা হলোনা আমি কি সঠীক বিচার পাবো না।এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্র্যেট ও সহকারী কমিশনার ভূমি মো. নজরুল ইসলাম বলেন, সরকারী খাস জমিতে অবৈধ স্থাপনা তৈরি করায় সেগুলো গলাচিপা থানা পুলিশের উপস্থিতিতে উচ্ছেদ করা হলো। এবং পূরোনো স্থাপনা ও অচিরেই উচ্ছেদ করা হবে বলে তিনি জানান। উক্তব্যপারে গোলখালী ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান মো. নাসির উদ্দিন হাওলাদার বলেন,সরকারী খাস জমিতে ঘর উত্তোলন করায় প্রশাসন তা ভেঙ্গে দিয়েছে। এবং সরকারি খাস জমিতে কারো কোন ঘড় থাকবেনা বলে জানান। এসময় ইউনিয়ন ভুমি তহসিলদার বাপ্পি, আহম্মেদ এর কাছে উচ্ছেদ অভিযান বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন,আমাকে ইউ,এন,ও স্যার সরেজমিনে পাঠালে আমি সকলকে ঘড় উওোলনে বাধা প্রয়োগ করি এবং লাল নিশান গেরে দেওয়া হয়। তবে এখানে সি এম বির জমিও রয়েছে কাগজপএ দেখে জানানো হবে বলে তিনি জানান। উচ্ছেদ অভিযানের বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আশিস কুমার প্রতিবেদককে জানান, সরকারি সকল অবৈধ দখলের বিরুদ্ধে অভিযান অভ্যাহত থাকবে।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: