মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১:১৩ পূর্বাহ্ন

করোনার অর্থনৈতিক বিপর্যয় কয়েক প্রজন্ম ভোগাবে: কিসিঞ্জার

  • সময় রবিবার, ৫ এপ্রিল, ২০২০
  • ১০৬ বার পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
করোনাভাইরাস মহামারির কারণে বিশ্ব অর্থনীতিতে যে বিপর্যয় নেমেছে তা আগামী কয়েক প্রজন্ম ধরে ভোগাতে পারে। এই সংকট মোকাবিলায় সব দেশের সমন্বিত পরিকল্পনা ও তার যথাযথ বাস্তবায়ন জরুরি বলে মনে করেন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেনরি কিসিঞ্জার।

গত শুক্রবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম দ্য ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে লেখা মতামতে তিনি বলেন, করোনা সংকট মোকাবিলায় ব্যর্থ হলে এর প্রভাবে সারাবিশ্বে আগুন জ্বলতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট রিচার্ড নিক্সন ও জেরাল্ড ফোর্ডের মন্ত্রিসভার প্রভাবশালী এ সদস্যের মতে, করোনা মহামারির তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় ট্রাম্প প্রশাসন দারুণ কাজ করেছে। তবে এ সংকট পুরোপুরি কাটাতে তাদের আরও কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। এর জন্য শুধু আমেরিকানদেরই নয়, গোটা বিশ্বের বিশ্বাস অর্জন করতে হবে তাদের।

কিসিঞ্জার বলেন, কোভিড-১৯ মহামারি শেষ হলে অনেক দেশ, অনেক প্রতিষ্ঠানকে ব্যর্থ বলে ধরা হবে। সেই বিচার সঠিক কি না তা অপ্রাসঙ্গিক। বাস্তবতা হচ্ছে, করোনাভাইরাসের পরে বিশ্ব আর কখনোই একই রকম হবে না।

এই সংকট কাটাতে যুক্তরাষ্ট্রকে তিন ধাপে পদক্ষেপের পরামর্শ দিয়েছেন ১৯৭৩ সালে শান্তিতে নোবেলজয়ী এ বক্তিত্ব। প্রথমত, সংক্রমণ রোধে নতুন কৌশল ও প্রযুক্তি আবিষ্কার করতে হবে। এরপর সেগুলো বিশাল জনগোষ্ঠীর মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে।

সব শহর, অঙ্গরাজ্য ও অঞ্চলকে তাদের জনগণ যেন পণ্য মজুত করতে না পারেন সেটি নিশ্চিত করতে হবে। সবশেষ, করোনাভাইরাস বিশ্ব অর্থনীতিতে যে ক্ষত তৈরি করেছে, তা সারিয়ে তুলতে তবে। তবে এটি যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশের পক্ষেও একা সম্ভব নয় বলে মনে করেন দেশটির সাবেক এ মন্ত্রী।

তিনি বলেন, গণতান্ত্রিক বিশ্বকে তার আলোকিত মূল্যবোধ রক্ষা রাখতে হবে। নাহয় ক্ষমতার ভারসাম্য থেকে পশ্চাদপসরণ দেশীয় ও আন্তর্জাতিক উভয়ভাবেই সামাজিক চুক্তিকে বিভক্ত করে ফেলবে।

সূত্র: ডেইলি মেইল

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: