সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৫৪ পূর্বাহ্ন

আবার ১৫ দিনের রিমান্ডে পাপিয়া

  • সময় বুধবার, ১১ মার্চ, ২০২০
  • ১৮৯ বার পড়া হয়েছে

নরসিংদীর বহিষ্কৃত জেলা যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক শামিমা নূর পাপিয়াকে তিন মামলায় ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। বুধবার (১১ মার্চ) পা‌পিয়া ও তার স্বামীকে আদালতে হা‌জির করে বিমানবন্দর থানার এক‌টি ও শে‌রে বাংলানগর থানার দ‌ু‌টি মামলায় ফের এক মাসের রিমান্ড চাওয়া হয়। শুনা‌নি শেষে ঢাকার দুজন পৃথক মেট্রোপ‌লিটন ম‌্যা‌জিস্ট্রেট ১৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি যুবলীগ নেত্রী শামিমা নূর পাপিয়া ও তার স্বামীসহ চারজনের প্রত্যেককে তিন মা’মলায় ১৫ দিন করে রি’মান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।
ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে তাকে হাজির করে বিমানবন্দর থানার বিশেষ ক্ষমতা আইনসহ জাল টাকা উ’দ্ধারের মা’মলায় ১০ দিনের রি’মান্ড আবেদন করেন ত’দন্ত কর্মক’র্তা পু’লিশ পরিদর্শক (ত’দন্ত) কায়কোবাদ কাজী। রি’মান্ড আবেদনের প্রতিবেদনে পাপিয়াসহ চার আ’সামি সংঘবদ্ধভাবে অ’বৈধ অ’স্ত্র-মা’দক ব্যবসা, চো’রাচালান, জাল নোটের ব্যবসা, চাঁদাবাজি, তদবির বাণিজ্য, জমি দখল-বেদখল, অ’নৈতিক ব্যবসার মাধ্যমে বিপুল অর্থ-বিত্ত অর্জনের কথা উল্লেখ করে মালিক হয়েছে বলে স্বীকার করেছেন বলে উল্লেখ করা হয়। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মাসুদুর রহমান পাঁচ দিনের রি’মান্ড মঞ্জুর করেন। এছাড়া মা’মলার সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ ত’দন্তের স্বার্থে এবং আ’সামিদের কাছ থেকে উ’দ্ধারকৃত বৈদেশিক মুদ্রার উৎস এবং জাল টাকা তৈরি চক্রের সক্রিয় সদস্যদেরসহ মূলহোতাকে গ্রে’প্তার, আ’সামিদের নিয়ে পু’লিশ অ’ভিযান পরিচালনা এবং ঘটনার বিষয়ে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রি’মান্ড আবেদন করে পু’লিশ। এর আগে ১০ দিনের রি’মান্ড দেয় আ’দালত।

গত ২২ ফেব্রুয়ারি দুপুরে রাজধানীর হ’জরত শাহ’জালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হয়ে দেশত্যাগের সময় শামিমা নূর পাপিয়া ওরফে পিউসহ (২৮) চারজনকে আ’ট’ক করে র‌্যা’­ব-১। তাদের কাছ থেকে সাতটি পাসপোর্ট, নগদ দুই লাখ ১২ হাজার ২৭০ টাকা, ২৫ হাজার ৬০০ টাকার জাল মুদ্রা, ১১ হাজার ৯১ ইউএস ডলারসহ বিভিন্ন দেশের মুদ্রা জ’ব্দ করা হয়। এ দিন র‌্যা’­ব জানায়, রাজধানীর গুলশানের হোটেল ওয়েস্টিনে প্রেসিডেন্ট স্যুট নিজের নামে সব সময় বুকড করে নানা ধরনের অসামাজিক কার্যকলাপ চালিয়ে যাচ্ছিলেন পাপিয়া। যিনি হোটেলটির বারে বিলবাবদ প্রতিদিন পরিশোধ করতেন প্রায় আড়াই লাখ টাকা। বৈধ আয় অনুযায়ী পাপিয়ার বাৎসরিক আয় মাত্র ১৯ লাখ টাকা। অথচ হোটেল ওয়েস্টিনে শুধু গত তিন মাসেই বিল পরিশোধ করেছেন প্রায় ১ কোটি ৩০ লাখ টাকা। যিনি নারী সংক্রান্ত অ’পকর্ম ছাড়াও অ’স্ত্র-মা’দক ব্যবসা, চাঁদাবাজি ও বিভিন্ন তদবির বাণিজ্যের সঙ্গে জ’ড়িত। শনিবার গ্রে’প্তারের পর ওইদিন রাতেই নরসিংদীর বাসায় এবং রবিবার ভোরে হোটেল ওয়েস্টিনে তাদের নামে বুকিং করা বিলাসবহুল প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুটে অ’ভিযান চালানো হয়। এছাড়া ফার্মগেট এলাকার ২৮ নম্বর ইন্দিরা রোডে অবস্থিত রওশনস ডমিনো রিলিভো নামক বিলাসবহুল ভবনে তাদের দুটি ফ্ল্যাটে অ’ভিযান পরিচালনা করে একটি বিদেশি পি’স্তল, দুটি পি’স্তলের ম্যাগজিন, ২০ রাউন্ড পি’স্তলের গু’লি, পাঁচ বোতল বিদেশি ম’দ ও নগদ ৫৮ লাখ ৪১ হাজার টাকা, পাঁচটি পাসপোর্ট, তিনটি চেক, বিদেশি মুদ্রা, বিভিন্ন ব্যাংকের ১০টি ভিসা ও এটিএম কার্ড জ’ব্দ করে র‌্যা’­ব।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: