বৃহস্পতিবার, ০৯ জুলাই ২০২০, ০৭:৫৩ পূর্বাহ্ন
নোঠিশ
ওয়েব সংষ্কারের কাজ চলিতেছে। সাময়িক অপরাগতার জন্য দু:খিত

স্বাধীনতার মাসে মুজিব বর্ষে মুদিকে আমন্ত্রণ জানানো মুজিব বর্ষকে কলঙ্কিত করবে -ইসলামী আন্দোলন মাদারীপুর

  • সময় শনিবার, ৭ মার্চ, ২০২০
  • ১০৩ বার পড়া হয়েছে

নাবিলা ওয়ালিজা ,মাদারীপুর::
মাদারীপুর ট্রাকস্ট্যান্ডে ভারতে দিল্লির মুসলিম নির্যাতন, গণহত্যা, মসজিদে অগ্নিসংযোগ এবং নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশে আগমনের প্রতিবাদে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মাদারীপুর জেলা শাখার উদ্যোগে জেলা সহ সভাপতি আলহাজ্ব আজিজুল হক মল্লিক এর সভাপতিত্বে গতকাল ৬ মার্চ ২০২০ইং শুক্রবার বিকাল ৪.৩০মিঃ টায় বিক্ষোভ মিছিল এর আয়োজন করা হয়। বিক্ষোভ মিছিল পূর্ব সমাবেশে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মাদারীপুর জেলা শাখার সেক্রেটারী মাওলানা এস এম আজিজুল হক বলেন, নরেন্দ্র মোদির হাতে বারবার মুসলমানদের রক্তের দাগ লেগেছে। তার প্রশ্রয়ে দিল্লিতে হিন্দুত্ববাদী সাম্প্রদায়িক উন্মাদনায় মুসলমানদের বিরুদ্ধে পরিকল্পিত গণহত্যা চালানো হয়েছে। এমন একজন বিতর্কিত ব্যাক্তিকে স্বাধীনতার মাসে মুজিব বর্ষে আমন্ত্রণ জানানো একদিকে যেমন মুজিব বর্ষকে কলঙ্কিত করা হবে, অন্যদিকে স্বাধীনতার চেতনাকে ভ‚লণ্ঠিত করে গোটা জাতিকে অপমান করা হবে। বাংলাদেশের মানুষ তা মেনে নেবে না। আমরা মুদির আমন্ত্রণ প্রত্যাহার করার জন্য সরকারের প্রতি জোর আহŸান জানাই। আমরা মুজিব বর্ষের বিরোধিতা করছিনা। আমরা ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নয়, ব্যাক্তি নরেন্দ্র মোদির বিরোধিতা করছি। সেক্রেটারী বলেন, ভারতে রাষ্ট্রীয়ভাবে মুসলমানদের নির্মূল করার অপচেষ্টা চলছে। সিএএ, এন আর সি, এসবের মূল উদ্দেশ্য ভারতকে মুসলিম শূন্য করা। ধর্মনিরপেক্ষতার দাবীদার ভারত একুশ শতকের দ্বিতীয় দশকে যেভাবে গণহত্যা চালিয়ে মুসলমানদের নির্মূল করতে চায়, তা আমাদের হালাকুখান, চেঙ্গিসখান ও হিটলারের নৃশংসতার কথা স্মরণ করিয়ে দেয়। বি.জে.পি ভারতকে দ্বিতীয় স্পেন বানাতে চায়। তাদের মনে রাখা উচিত, ইংরেজদের দুইশ বছরের সর্বগ্রাসী নির্যাতন স্বত্বেও ভারত থেকে মুসলমানদের নির্মূল করা যায়নি, বরং তারাই বিতাড়িত হয়েছে। সেক্রেটারী আরো বলেন, ইসলাম সম্প্রদায় সম্প্রতির ধর্ম। দিল্লির এই উন্মাত্ততার মাঝেও মুসলমানরা হিন্দুদের মন্দির পাহারা দিয়েছে। এর চেয়ে সম্প্রদায় সম্প্রীতির নজির আর কি হতে পারে! সেক্রেটারী ভারতের মুসলিম নির্যাতন ও গণহত্যার প্রতিকারে জাতিসংঘ, ওআইসি ও মুসলিম বিশ্বসহ আন্তর্জাতিক মহলকে সোচ্চার হওয়ার আহŸান জানান। সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন সাবেক জেলা সভাপতি আলহাজ্ব আজাহার উদ্দিন মোড়ল, সহ সভাপতি মাওলানা আমিনুল ইসলাম, শ্রমিক নেতা আলহাজ্ব আব্দুল ওহাব মাতুব্বর, যুবনেতা মাওলানা জামিল হোসাইন, ছাত্রনেতা মুহাম্মাদ।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: