সোমবার, ০৬ জুলাই ২০২০, ১১:৪৩ পূর্বাহ্ন
নোঠিশ
ওয়েব সংষ্কারের কাজ চলিতেছে। সাময়িক অপরাগতার জন্য দু:খিত

কালকিনিতে দরিদ্র মুক্তিযোদ্ধার গাছ কেটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষ

  • সময় শনিবার, ৭ মার্চ, ২০২০
  • ১১৭ বার পড়া হয়েছে

নাবিলা ওয়ালিজা ,মাদারীপুর::
জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে মাদারীপুরের কালকিনিতে জয়নাল সরদার নামে এক অসহায় দরিদ্র মুক্তিযোদ্ধার বাড়ির পাশের জমিতে লাগানো চাম্বুল ও মেহেগনিসহ প্রায় ৩০টি গাছ কেটে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষ। শুক্রবার দুপুরএ ঘটনা ঘটে। এ বিষয় ওই মুক্তিযোদ্ধা আজ শনিবার দুপুরে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।
এলাকা ও ভুক্তভোগীর অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, পৌর এলাকার শিকারমঙ্গল এলাকার মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল সরদারের বাড়ির পাশের শিকারমঙ্গল মৌজার ৮৩৬ নং খতিয়ানের ৫০৮ নং দাগে ২০ শতাংশ জমি রয়েছে। ওই জমিতে তিনি প্রায় ২০ বছর আগে চাম্বুল ও মেহেগনিসহ শতাধিক গাছ রোপন করেন। কিন্তু এ জমি নিয়ে মুক্তিযোদ্ধ জয়নাল সরদারের সঙ্গে একেই এলাকার কাশেম সরদারের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে। এর জেরে প্রথম থেকেই জমি দখলের চেষ্টা করে আসছে কাশেম সরদার। এ ঘটনায় মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল বাদী হয়ে কাশেমসহ ৪ জনকে আসামী করে মাদারীপুর আদালতে ১৪৪/১৪৫ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন। কিন্তু এ মামলা করায় কাশেম সরদার ক্ষিপ্ত হয়ে তার লোকজন নিয়ে ওই বিরোধপূর্ন জমি থেকে ৩০টি গাছ কেটে ফেলেন।
ভুক্তভোগী মুক্তিযোদ্ধ জয়নাল সরদার কান্না জরিত কন্ঠে বলেন, আমার পৈত্রিক জমিতে আমার লাগানো গাছগুলো কেটে নিয়ে গেছে প্রভাবশালী কাশেম ও তার লোকজনেরা। আমার কোন শক্তি না থাকায় কাশেম গাছগুলো নিয়ে গেছে। আমার টাকা পয়শা নাই আমি কোথায়ও কোন সঠিক বিচার পেলাম না।
অভিযুক্ত কাশেম সরদার বলেন, ওই জমি আমার, তাই গাছ কেটেছি। আমার কাগজপত্র আছে।
কালকিনি থানার ওসি মোঃ নাসিরউদ্দিন মৃধা বলেন, মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল সরদার থানায় মামলা করলে আমরা ব্যবস্থা নেব।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন, থানা পুলিশ যদি কোন ব্যবস্থা না নেয় তাহলে আমি বিষয়টি দেখব।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: