শুক্রবার, ০২ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন

হোয়াইক্যং কেরুনতলী গ্রামের আমীর আলীর বিরুদ্ধে ইয়াবা সিন্ডিকেট এর অভিযোগ

  • সময় শুক্রবার, ৬ মার্চ, ২০২০
  • ২১৩ বার পড়া হয়েছে

ক্রাইম প্রতিবেদন( ১)
সাম্প্রতিক সময়ে টেকনাফ উপজেলার, হোয়াইক্যং কেরুনতলী গ্রামে ইয়াবা ছিনতাইয়ের ঘটনার পর থেকে একের পর এক ইয়াবার চাঞ্চল্যকর তথ্য বেরিয়ে আসে। কে বা কারা এ সিন্ডিকেট এ জড়িত? ঘটনার মূলহোতা কারা, বিভিন্ন গোপন তথ্য বেরিয়ে আসে। স্থানীয় বেকার যুবকদের দিয়ে ইয়াবা পাচার করে যাচ্ছেন কেরুনতলী গ্রামের আমীর আলী এবং তার ছেলে আকতার হোসেন। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আমীর আালীর পূর্ব বসত ভিটা ছিল ইয়াবার স্বর্গরাজ্য খ্যাত হোয়াইক্যং খারাঙ্গাঘোনা এলাকায়। তার অবৈধ ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িত থাকার খবর এলাকায় জানাজানি হলে আমীর আলী খারাঙ্গাঘোনা ছেড়ে কেরুনতলী চলে আসে। ইয়াবা ব্যবসার চ্যানেল পরিবর্তন করলেও তার পূর্ব পরিচিত গডফাদাদের সাথে চলে নিয়মিত সখ্যতা। সিন্ডিকেটর সদস্যদের তার ঘরে সন্দেহ জনক আনাগোনা চোখে পড়ার মতো, আস্তে আস্তে বেরিয়ে আসে আমীর আলী ও তার ছেলের অপকর্ম। কিছু দিন আগে হোয়াইক্যং পুঁলিশপাড়ী ইয়াবা সহ হাতানতে গ্রেফতার করে আমীর আলীর কে। কেরুনতলী এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আমীর আলী একজন পেশাদার মাছ বিক্রিতা হওয়ার সুবাদে সিমান্ত এলাকায় তার জানাশুনা বেশি, সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে তিনি বর্ডার থেকে বিপুল পরিমাণ ইয়াবার চালান বহন করে নিয়ে আসেন। বাপ বেটা মিলে গড়ে তুলেছেন ইয়াবার শক্তিশালী সিন্ডিকেট। সম্প্রতি তার আপন ভাই ও ইয়াবা নিয়ে গ্রেফতার হয়। গত ২৬ মার্চ ২০২০ খ্রীঃ কেরুনতলী, খারাঙ্গাঘোনা এলাকায় কোটি টাকার ইয়াবা ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িত অধিকাংশ ব্যক্তিদের সাথে আমীরআলীর যোগাযোগ রয়েছে বলে জানা যায়। এবিষয়ে হোয়াইক্যং পুলিশ ইনচার্জ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, বর্তমান সময়ে খারাঙ্গাঘোনা, কেরুনতলী, কাটাখালী এলাকায় দিন দিন অপরাধের পরিমাণ বেড়ে চলছে, অবৈধ ব্যবসার সাথে জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না।

Please Share This Post in Your Social Media

আরো সংবাদ
%d bloggers like this: