রবিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২০, ০১:৪৪ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ার অনলাইন পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম। আপনার চারপাশে চলমান অনিয়ম দুর্নীতির খবর আমাদের জানান। দেশকে বাচাঁন দেশকে ভালবাসুন

চাটমোহরে দু’টি অবৈধ ইটভাটায় অবাধে পুড়ছে কাঠ,পরিবেশ বিপন্ন

  • সময় মঙ্গলবার, ১৪ জানুয়ারি, ২০২০
  • ৬৮ বার পড়া হয়েছে

চাটমোহর (পাবনা) প্রতিনিধি

পাবনার চাটমোহরে ইটভাটার মালিকরা মানছে না ইট তৈরি ও ভাটা স্হাপন আইন। তারা নিজেদের ইচ্ছেমতো আবাসিক,কৃষি জমি ও পরিবেশ সংকটাপন্ন এলাকায় ইটভাটা স্হাপন করেছে। আর সব ইটভাটায় অবৈধ ভাবে পোড়ানো হচ্ছে মূল্যবান বনজ ও ফলজ গাছ। ভাটার ধুলা,কালো ধোঁয়া ও আগুনের তাপে ধ্বংস হচ্ছে নিকটবর্তী এলাকার সবুজ মাঠ,বনজ সম্পদ ও ফলজ গাছ।এ সকল ইটভাটার কোন প্রকার অনুমোদন নেই। নেি পরিবেশ অধিদপ্তরের প্রত্যায়নপত্র। চাটমোহর উপজেলার হরিপুর ইউনিয়নের ধুলাউড়ি ও গুনাইগাছা ইউনিয়নের গুনাইগাছা এলাকায় একই নামের ( সিটিবি)দুইটি ইটভাটায় দিনরাত অবাধে কাঠ পোড়ানো হচ্ছে। ইটভাটাটি ফসলী জমির মাঝখানে স্হান করা হয়েছে। কোন প্রকার নিয়মনীতি মানা হচ্ছে না। নেই কোন প্রকার অনুমোদন। ইটভাটায় প্রতিদিন শত শত মণ কাঠ পোড়ানো হচ্ছে। ধোঁয়ার কারনে মরে যাচ্ছে গাছপালা। পরিবেশ হচ্ছে বিপন্ন। ইতিপূর্বে সিটিবির গুনাইগাছা ইটভাটায় ভ্রাম্যমান আদালত অভিজান চালিয়ে দেড় লক্ষ টাকা জরিমানা ও করেছে। কিন্তু কর্মকান্ড থেমে নেই। এলাকাবাসীর তথ্যসূত্রে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেলো,ইটভাটার চারপাশে কাঠ সাজানো গাড়িতে করে গাছ কেটে এনে কাঠ পরিমাপ করা হচ্ছে প্রকাশ্যে ভাটার সামনে। ধুমছে কাঠ পুড়ছে ভাটায়। পরিবেশ অধিদপ্তরের কোন ছাড়পত্র নেই। নেই কোন লাইসেন্স ও। সিটিবি ব্রিকস নামের ইট প্রস্তুতকারী এই দুটি ইটভাটায় প্রতিদিন প্রকাশ্যে কাঠ পোড়ানো হচ্ছে কেই দেখছে না। সামান্য কয়লা ভাটার সামনে রাখা হয়েছে। দিনরাত শুধু খড়ি দিয়েই ইট পুড়ছে। লাইসেন্স বা কোন প্রকার অনুমোদনেরর ধার ধারছেন না ভাটা মালিক। এলাকাবাসী জানান, এলাকার কতিপয় ব্যক্তির সহায়তায় ঢাকার এক ব্যক্তি ফসলী জমির মাঝে এই ইটভাটা দুইটি স্হাপন করেছেন। দিনরাত খড়ি কিনে ভাটায় আনা হচ্ছে। উজার হচ্ছে এলাকার গাছপালা। পরিবেশ হচ্ছে বিপন্ন।

Comments Below
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ
Shares