রবিবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২০, ০৩:১০ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ার অনলাইন পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম। আপনার চারপাশে চলমান অনিয়ম দুর্নীতির খবর আমাদের জানান। দেশকে বাচাঁন দেশকে ভালবাসুন

জামিন পেলো না কক্সবাজারের পিইসি পরীক্ষা বঞ্চিত স্কুল ছাত্র শাহ আমিন

  • সময় বৃহস্পতিবার, ২ জানুয়ারি, ২০২০
  • ১৫৩ বার পড়া হয়েছে

বেলাল আজাদ,
কক্সবাজার:

প্রতিবেশীর গৃহ চুরির মামলায় দীর্ঘ সাড়ে প্রায় ৩ মাস কারাবাসের পরেও জামিন পেলো না কক্সবাজারের পিইসি পরীক্ষা বঞ্চিত স্কুল ছাত্র শাহ আমিন (১৪)।

কক্সবাজারের শিশু আদালতে স্কুল ছাত্র শাহ আমিনের পক্ষে পূর্বে করা জামিনের আবেদন শুনানীর জন্য ধার্য বৃহঃবারে ধার্য (২ জানুয়ারী) দিনে শিশু ছাত্র শাহ আমিনের আইনজীবীরা জামিনের আবেদন শুনানী করেন। শুনানী শেষে কক্সবাজারের শিশু আদালত তথা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যূনাল-৩ এর বিজ্ঞ বিচারক (জেলা জজ) জনাব মোঃ নূর ইসলাম শিশু ছাত্র শাহ আমিনের জামিনের আবেদন নামঞ্জুরের আদেশ দেন।
গত ২১ সেপ্টেম্বর থেকে কারাবন্দি থাকা শিশু ছাত্র শাহ আমিনের পক্ষে ইতিপূর্বে পিইসি পরীক্ষা শুরুর দিন ১৭ নভেম্বরও একই আদালতে জামিনের আবেদন করা হয়েছিল, তাও নামঞ্জুর হয়। ফলে সদ্য সম্পন্ন পিইসি ২০১৯ পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারেনি শিশু ছাত্র শাহ আমিন। স্কুল ছাত্র শাহ আমিনের আইনজীবি এডভোকেট মহি উদ্দীন খান বলেন, শিশু ছাত্র শাহ আমিনের জামিনে আজ আমরা খুবই আশাবাদী ছিলাম, তবে বিজ্ঞ আদালত নামঞ্জুর করেন।

জানা যায়, উখিয়া উপজেলার রাজাপালং ইউনিয়নের রেজুরকুল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর নিয়মিত মেধাবী ছাত্র ও সদ্য সম্পন্ন-ফল প্রকাশিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) ২০১৯ পরীক্ষার্থী শাহ আমিন (১৪) পার্শ্ববর্তী জালিয়াপালং ইউনিয়নের পাইন্যাশিয়া গ্রামের দিনমজুর শামসুল আলমের ছেলে। একই গ্রামের বাসিন্দা ও জালিয়াপালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নূরুল আমিন চৌধুরীর ভাই মৃত আমিনুল হক চৌধুরীর বসতগৃহে গত বছরের ২৬ আগষ্ট গভীর রাতে অজ্ঞাত চোরের দল আড়াই লাখ টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে গেলে বাড়ীর লোকজন বা পাড়া-প্রতিবেশী কেউ দীর্ঘদিনেও উক্ত চুরির কোন ক্লু উদ্ধার করতে পারছিল না। চুরির ঘটনার দীর্ঘ ২৪ দিন পরে চুরি হওয়া গৃহ পক্ষের লোকজন সুনির্দিষ্ট কোন প্রমাণ বা কারণ ছাড়াই স্কুল ছাত্র শাহ আমিন কে এলাকায় কয়েক দফায় মারধর করে উখিয়া থানায় সোপর্দ করে এবং একই সাথে শিশু ছাত্র শাহ আমিন কে ১ নং আসামী করে মামলা (উখিয়া থানার মামলা নং-৩৭, তাং-২০/০৯/২০১৯ইং, জি.আর.নং-৪৬৮/২০১৯, ধারা: ৪৫৭/৩৮০/৩৪ দন্ডবিধি) দায়ের ক্রমে, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার মাধ্যমে নিরীহ স্কুল ছাত্র শাহ আমিনকে আদালতে সোপর্দ করে। তখন থেকে কারানন্দিত্বের ফলে মেধাবী স্কুল ছাত্র শাহ আমিন পিইসি পরীক্ষাও দিতে পারেনি। এদিকে একই মামলায় একই অভিযোগে অভিযুক্ত অপর আসামী (প্রাপ্ত বয়স্ক) মোঃ শাহজাহান মাত্র এক মাস কারাবাসের পর গত ২৪ নভেম্বর সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছে।

Comments Below
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ
Shares