রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:০৯ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ার অনলাইন পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম। আপনার চারপাশে চলমান অনিয়ম দুর্নীতির খবর আমাদের জানান। দেশকে বাচাঁন দেশকে ভালবাসুন

কে হতে পারেন হিজলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি

  • সময় রবিবার, ১ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ১২৭ বার পড়া হয়েছে

হিজলা প্রতিনিধিঃ
বরিশালের হিজলা উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন মহলে চলছে নানা গুঞ্জন। কে হতে পারে হিজলা উপজেলা আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারক।

২০১২ সালে হিজলা উপজেলার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে সুলতান মাহমুদ টিপু কে সভাপতি, নজরুল ইসলাম মিলনকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়েছে। দীর্ঘ ৭ বছর অতিক্রম হলেও এখন পর্যন্ত হিজলা উপজেলার ইউনিয়ন সম্মেলন করতে পারেনি ওই কমিটি। এখন ২০১৯ আবারো উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন।

নেতাকর্মীদের দাবি এই সম্মেলনের মধ্য দিয়ে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মতামত নিয়ে একটি শক্তিশালী কমিটি করা উচিত। আত্মীয় লীগ থেকে বেরিয়ে প্রকৃত নিবেদিত দলের নেতাকর্মীদের প্রাধান্য দিয়ে যদি একটি কমিটি করা যায় তাহলে বরিশাল জেলার মধ্যে সবচেয়ে শক্তিশালী সংগঠন হিসেবে হিজলা আওয়ামীলীগ দাঁড়াবে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন ভিন্ন কথা তারা বলছে পূর্ণাঙ্গ কমিটি না দিয়ে এই মুহূর্তে কমিটি ভেঙে দিয়ে ছোট্ট পরিসরে একটি আহ্বায়ক কমিটি করে তাদের মাধ্যমে ইউনিয়ন, ওয়াড এর নেতা নির্ধারণ করলেই আত্মীয় লীগ, অনুপ্রবেশকারী এবং হাইব্রিডরা বাদ পড়বে। বেরিয়ে আসবে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক প্রকৃত আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।

বর্তমান কমিটিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মাহমুদ টিপুর পরিবার, আত্মীয়-স্বজনসহ এর ১৭ জন বিভিন্ন পদের দায়িত্বে রয়েছে। উল্লেখ্য তার সেজ ভাই আলতাফ মাহমুদ দিপু উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক, মেজ ভাই তালাত মাহমুদ নিপু গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, আপন চাচা মজিদ সিকদার ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি, বড় মেয়ের বাসুর আহসান হাবীব হিরণ হাওলাদার বড়জালিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, আরেক বাসুর এক সময়ের যুবদলের সাধারণ সম্পাদক লোকমান হোসেন উপজেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা ও বিজ্ঞান বিষয়ক সম্পাদক, তার বেয়াই এক সময় উপজেলা জাতীয় পার্টির নেতা ফারুকুল ইসলাম সরদার উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক এভাবেই ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পদ দখল করে আছে প্রকৃত নিবেদিত নির্যাতিত বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিকরা বঞ্চিত হচ্ছে পদ-পদবী থেকে। মেমানিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল খায়ের মির্ধা তার পুত্রা।

উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ের একাধিক নেতা বলেন যাদের দ্বারা হিজলা উপজেলার খন্ড বিখন্ড আওয়ামী লীগকে একত্রে করা সম্ভব তাদের মধ্যে রয়েছে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্যবিষয়ক সম্পাদক কাজী তৌহিদুল আলম মাসুদ, বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য অধ্যাপক শাহজাহান তালুকদার ও বরিশাল জেলা পরিষদের সদস্য হিজলা উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রাক্তন সভাপতি দলিলুর রহমান সিকদার।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি দলিলুর রহমান সিকদার নিকট আওয়ামীলীগের বর্তমান পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সভাপতি দেশরত্ন শেখ হাসিনার ও বরিশাল জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহর প্রতি শ্রদ্ধা রেখে বলছি হিটলার আওয়ামী লীগের শক্তিশালী ও অনুপ্রবেশকারীদের দখল এবং দুর্নীতিবাজদের থেকে মুক্ত করতে হলে বর্তমান কমিটি ভেঙে দিয়ে আহ্বায়ক কমিটি করে নতুন করে নির্যাতিত-নিপীড়িত নেতা কর্মীর নিয়ে কমিটি গঠন করা উচিত।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম মিলন বলেনআমাদের অভিভাবক জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ ও সাধারণ সম্পাদক তালুকদার মোঃ ইউনুছ এর দেয়া নির্দেশ উপেক্ষা করে ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি একাই গঠন করে যা গঠনতন্ত্রের পরিপন্থী।

একইভাবে বরিশাল জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক কাজী তৌহিদুল আলম মাসুদ বলেন হিজলা উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান সংকট নিরসন করতে হলে আহ্বায়ক কমিটির একান্ত প্রয়োজন।

Comments Below
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ
Shares