রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৫:৪০ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ার অনলাইন পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম। আপনার চারপাশে চলমান অনিয়ম দুর্নীতির খবর আমাদের জানান। দেশকে বাচাঁন দেশকে ভালবাসুন

অবশেষে কক্সবাজারের ৮ উপজেলায় ভূমি অফিসে ব্যাপক রদবদলঃ জনমনে স্বস্তি

  • সময় রবিবার, ১৭ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৪০ বার পড়া হয়েছে

আলোকিত প্রতিবেদকঃ

‘অনৈতিক লেনদেন’র খনি’ বলে খ্যাত দেশের উপজেলা ভূমি অফিস সমুহ। স্বয়ং ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ প্রকাশ্যে বলেছেন, ভূমি অফিসের ‘বড়মিয়া’দের জ্বালায় সাধারণ মানুষ এখন অতিষ্ঠ। যেখানে ‘রাতকে দিন-দিনকে রাত করা হয়’ বললে বেশী বলা হবেনা। প্রশাসনের কর্মচারীরাও এসব উপজেলা ভূমি অফিসে চাকুরী করতে খুব বেশী আগ্রহী থাকেন সবসময়।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের আওতাধীন সেরকম ৮টি উপজেলা ভূমি অফিসে ঘটে গেলো বদলী ও নিয়োগ প্রলয়। এ প্রলয়ে হতভম্ব হয়ে পড়েছে উপজেলা ভূমি অফিসের রাজাধিরাজের মতো গেড়ে বসা কর্মচারীরা। বিভিন্নজনের সাথে নিকট ভবিষ্যতে কাজ করে দেওয়ার চুক্তি করে নেয়া অনৈতিক অর্থ মক্কেলকে ফেরত দেওয়ার চিন্তায় এসব কর্মচারীরা উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছেন। তবে কিছুটা স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছেন, স্থানীয় লোকজন। তারা আশাবাদী হয়েছেন, হয়ত উপজেলা ভূমি অফিসের কর্মচারীদের দৌরাত্ম্য, জণহয়রানি ও অনৈতিক লেনদেন একটু কমে আসবে বলে। ভুক্তভোগী জনসাধারণ ও স্থানীয় লোকজন কক্সবাজার জেলা প্রশাসনকে এ নিয়োগ ও বদলীর বিষয়ে সাধুবাদ জানিয়ে উপজেলা ভূমি অফিসে নতুন নিয়োগ প্রাপ্তদের অনৈতিক লেনদেন ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর হুশিয়ারি দিয়ে তাদের কাজকর্ম নিয়মিত নজরদারি করার অনুরোধ জানিয়েছেন।

গত ৭ নভেম্বর বৃহস্পতিবার কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন তাঁর কার্যালয়ের সংস্থাপন শাখার ১০৮.১৯.০০৪.১৯.৮০৫ নম্বর স্মারকে জারীকৃত এক অফিস আদেশে ৩২ জন কর্মচারীকে বদলী ও নিয়োগ দেন। তারমধ্যে, ৮ টি উপজেলা ভূমি অফিস থেকে ১৫ জনকে বদলী, ১২ জনকে ৮ টি উপজেলা ভূমি অফিসে নিয়োগ ও ৫ জনকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সহ বিভিন্ন জায়গায় বদলী করা হয়েছে।

বদলী করা কর্মচারীরা হলেন :
(১) সজল ধর, অফিস সহকারী, রামু উপজেলা ভূমি অফিস থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের রাজস্ব শাখায় বদলী। (২) মোঃ শফিউল আলম, অফিস সহকারী, সদর উপজেলা ভূমি অফিস থেকে সদর উপজেলার ইউএনও এর কার্যালয়ে বদলী। (৩) সুজন কান্তি ধর, অফিস সহকারী, সদর উপজেলা ভূমি অফিস থেকে উখিয়া ইউএনও এর কার্যালয়ে বদলী। (৪) শামশুল হুদা ছিদ্দিকী, সার্টিফিকেট সহকারী, পেকুয়া উপজেলা ভূমি অফিস থেকে চকরিয়া ইউএনও এর কার্যালয়ে বদলী। (৫) মোহাম্মদ হোছাইন, অফিস সহকারী, রামু উপজেলা ভূমি অফিস থেকে উখিয়া ইউএনও এর কার্যালয়ে বদলী। (৬) মিলন বড়ুয়া, অফিস সহকারী, চকরিয়া উপজেলা ভূমি অফিস থেকে রামু ইউএনও এর কার্যালয়ে বদলী। (৭) মোঃ সরওয়ার উদ্দিন, অফিস সহকারী, টেকনাফ উপজেলা ভূমি অফিস থেকে রামু ইউএনও এর কার্যালয়ে বদলী। (৮) শেখ আহমদ চৌধুরী, অফিস সহকারী, উখিয়া উপজেলা ভূমি অফিস থেকে মহেশখালী ইউএনও এর কার্যালয়ে বদলী। (৯) বিদ্যুৎ পাল, অফিস সহকারী, উখিয়া উপজেলা ভূমি অফিস থেকে কুতুবদিয়া ইউএনও অফিসে বদলী। (১০) নেপাল কান্তি দাশ, অফিস সহকারী, উখিয়া উপজেলা ভূমি অফিস থেকে পেকুয়া ইউএনও অফিসে বদলী। (১১) মুফিজুর রহমান, অফিস সহকারী, উখিয়া ভূমি অফিস থেকে চকরিয়া ইউএনও অফিসে বদলী। (১২) মৃদুল কান্তি দে, অফিস সহকারী, মহেশখালী উপজেলা ভূমি অফিস থেকে কুতুবদিয়া ইউএনও অফিসে বদলী। (১৩) শুধাংসু বিকাশ দে, অফিস সহকারী, মহেশখালী ভূমি অফিস থেকে মহেশখালী ইউএনও অফিসে বদলী। (১৪) নিতাই দাশ, অফিস সহকারী, কুতুবদিয়া ভূমি অফিস থেকে কুতুবদিয়া ইউএনও অফিসে বদলী। (১৫) মলয় পাল, অফিস সহকারী, পেকুয়া ভূমি অফিস থেকে কক্সবাজার সদর ইউএনও অফিসে বদলী। (১৬) কাঞ্চন দে, সাঁট মুদ্রাক্ষরিক, ইউএনও কুতুবদিয়ার অফিস থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (উন্নয়ন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) এর গোপনীয় শাখার বদলী। (১৭) প্রিয়তোষ কুমার দে, অফিস সহকারী, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (উন্নয়ন ও মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা) থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের পর্যটন সেলে বদলী। (১৮) তুষার কান্তি রুদ্র, অফিস সহকারী, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের জেএম শাখা থেকে টেকনাফ ইউএনও অফিসে বদলী। (১৯) ম্রাসাইকো মারমা, সাটিফিকেট সহকারী, চকরিয়া ইউএনও এর অফিস থেকে রামু উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২০) সাহাব উদ্দিন, অফিস সহকারী, ইউএনও চকরিয়ার অফিস থেকে রামু উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২১) অতনু পাল, অফিস সহকারী, কক্সবাজার সদর ইউএনও অফিস থেকে কক্সবাজার সদর উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২২) আবদুস ছালাম, অফিস সহকারী, উখিয়া ইউএনও অফিস থেকে কক্সবাজার সদর উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২৩) চিন্তা হরণ নাথ, অফিস সহকারী, কুতুবদিয়া ইউএনও অফিস থেকে পেকুয়া উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২৪) রুবেল বড়ুয়া, অফিস সহকারী, কুতুবদিয়া ইউএনও অফিস থেকে পেকুয়া উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২৫) মংচেন ওয়াং, অফিস সহকারী, মহেশখালী ইউএনও অফিস থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের জেএম শাখায় বদলী। (২৬) রীমা সুশীল তপু, অফিস সহকারী, পেকুয়া ইউএনও এর অফিস থেকে উখিয়া উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২৭) হাফেজ উদ্দিন, অফিস সহকারী, কক্সবাজার সদর ইউএনও অফিস থেকে উখিয়া উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২৮) নুপুর পাল, অফিস সহকারী, উখিয়া ইউএনও অফিস থেকে উখিয়া উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (২৯) শিমুল কান্তি দে, অফিস সহকারী, মহেশখালী ইউএনও অফিস থেকে মহেশখালী উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (৩০) হরিধণ দে, অফিস সহকারী, পেকুয়া ইউএনও অফিস থেকে মহেশখালী উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (৩১) মোক্তার আলম, অফিস সহকারী, কুতুবদিয়া ইউএনও অফিস থেকে কুতুবদিয়া উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী। (৩২) ধনঞ্জয় ধর, অফিস সহকারী, রামু ইউএনও অফিস থেকে চকরিয়া উপজেলা ভূমি অফিসে বদলী।

বদলীকৃত এ ৩২ জন কর্মচারীকে গত ১৪ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার এর মধ্যে বদলীকৃত নতুন কর্মস্থলে যোগ দিতে বলা হয়েছিলো। এ ৩২ জন কর্মচারী গত ১৪ নভেম্বরের মধ্যে বদলীকৃত নতুন কর্মস্থলে সকলেই যোগদান করেছেন কিনা, কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সংস্থাপন শাখার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান জাহিদের কাছে সিবিএন থেকে জানতে চাইলে, তিনি দাপ্তরিক কাজে আগামী সোমবার ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত অন্য একটি দায়িত্বে থাকায় এ বিষয়ে রোববার ছাড়া জানানো সম্ভব হচ্ছেনা বলে সিবিএন-কে জানিয়েছেন।

এদিকে, এ বিশাল বদলী-নিয়োগ কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের নিয়মিত রুটিন কাজ উল্লেখ করে একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা সিবিএন-কে বলেন, প্রশাসনের সর্ব পর্যায়কে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও সম্পূর্ণ দুর্নীতিমুক্ত করে তুলতে চাই। সরকারের এসডিজি অর্জনে এর কোন বিকল্প নেই উল্লেখ করে উক্ত কর্মকর্তা সিবিএন-কে আরো বলেন, শুধু এবার নিয়োগ-বদলী হওয়া ৩২ জন কর্মচারী নয়, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের সকল পর্যায়ে সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি ও জণহয়রানির মতো অভিযোগ উঠলে তা তদন্ত করে তাদের কঠোর আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি বলেন, এ বিষয়ে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন সবসময় ‘জিরো’ টলারেন্স নীতি অবলম্বন করবে।

প্রসংগত, গত ২৮ অক্টোবর মহেশখালী উপজেলা ভূমি অফিসের ভারপ্রাপ্ত কানুনগো মোঃ আবদুর রহমানকে আড়াই লক্ষ নগদ টাকা সহ দুর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয়-২ এর কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা হাতেনাতে গ্রেপ্তার করে। পরদিন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন ধৃত মোঃ আবদুর রহমানকে চাকুরী থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। যা ছিলো পুরো ১০/১২ দিন জুড়ে ‘টক অব দ্য কক্সবাজার’। পরে ৬ নভেম্বর মহেশখালী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অংগ্যজাই মারমাকে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয় থেকে নোয়াখালীতে বদলী করে সেখানে নতুন সহকারী কমিশনার (ভূমি) নিয়োগ দেওয়া হয়।

Comments Below
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ
Shares