বৃহস্পতিবার, ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ার অনলাইন পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম। আপনার চারপাশে চলমান অনিয়ম দুর্নীতির খবর আমাদের জানান। দেশকে বাচাঁন দেশকে ভালবাসুন

কক্সবাজারে এমপি কমলের ‘ওসমান ভবন’-এ বিনামূল্যে থাকতে পারবেন পর্যটকরা

  • সময় মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১১৬ বার পড়া হয়েছে

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিঃ

বিশ্বের অন্যতম পর্যটন শহর কক্সবাজারে বেড়াতে আসা পর্যটকদের এবার নিজের বসত বাড়ি ‘ওসমান ভবন’-এ বিনামূল্যে থাকার সু-ব্যবস্থা রয়েছে বলে ঘোষণা দিলেন কক্সবাজার-৩ (সদর-রামু) আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ সাইমুম সরওয়ার কমল। আগামী পর্যটন মৌসুমকে সামনে রেখে কক্সবাজারে আগত পর্যটকদের থাকার সুবিধার কথা চিন্তা করে এমপি কমল এ উদ্যোগ নিয়েছেন। ওসমান ভবনের ছবি সম্বলিত এ সংবাদটি মঙ্গলবার এমপি কমলের ব্যক্তিগত সহকারি আবু বক্কর ছিদ্দিকের ফেসবুকে প্রকাশিত হলে মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে পড়ে।

সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি’র বসত বাড়ি ‘ওসমান ভবন’ কক্সবাজার শহরের ৮ মাইল পূর্বে দেশের অন্যতম পুরাকীর্তির শহর রামু উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত।

উপজেলা পরিষদের পার্শ্বে মনোরম পরিবেশে অবস্থিত সুবিশাল ভবনে এসি/ননএসি বেশ কয়েকটি অত্যাধুনিক রুম রয়েছে। শতাধিক পর্যটকের রাত্রিযাপনের সাথে গাড়ি পার্কিং এর জন্য রয়েছে বিশাল আঙ্গিনা। সেমিনারের সুবিধার্থে ভবনের নীচ তলায় রয়েছে পরিপাটি হলরুম। সাথে রয়েছে শতাধিক লোকের ডাইনিং সুবিধা। বিশাল আঙ্গিনায় বড় আঙ্গিকে যে কোন ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে পারবে ভ্রমণ পিপাসু পর্যটকরা।এছাড়া, পর্যটন শহর কক্সবাজার জেলার মাঝামাঝি স্থানে রামু উপজেলা অবস্থান করায় জেলার যেকোন উপজেলার পর্যটন স্পট পরিদর্শনে রয়েছে যাতায়াতের সহজ সুবিধা। ওসমান ভবন একজন এমপি’র বাড়ি হলেও সাধারণ মানুষের পদচারণায় মুখরিত বাড়িটি গত কয়েক বছর ধরে সর্বসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করে দিয়েছেন এমপি কমল নিজেই। বাড়িটির নিরাপত্তায় সার্বক্ষণিক সিসি ক্যামরা দ্ধারা নিয়ন্ত্রিত।

এ ব্যাপারে এমপি কমল জানান, পর্যটন মৌসুমে কক্সবাজার জেলায় বিপুল পর্যটকের ঢল নামে। এ সময় অনেকেই হোটেল কক্ষ না পেয়ে বিড়ম্বনায় পড়েন। কক্সবাজারের পাশাপাশি রামুর দৃষ্টিনন্দন বৌদ্ধবিহারগুলো এখন পর্যটকদের অন্যতম আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দুতে পরিণত হয়েছে। কক্সবাজারে আগত পর্যটকেরা যেন কোন অসুবিধায় না পড়েন সেই জন্য রামুর মন্ডলপাড়াস্থ ওসমান ভবন উম্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। কক্সবাজারে যারা হোটেল কক্ষ পাবে না তারা সেখানে গিয়ে অনায়াসে বিনামূল্যে থাকতে পারবেন। তাদের জন্য ফ্রি খাবারেরও ব্যবস্থা রয়েছে। নিয়োজিত থাকবে প্রয়োজনীয় স্বেচ্ছাসেবক।

এমপি কমলের ব্যক্তিগত সহকারি আবু বক্কর ছিদ্দিক জানান, গত কয়েক বছর ধরে পর্যটন মৌসুমে আলহাজ সাইমুম সরওয়ার কমল এমপি মহোদয়ের আহ্বানে অনেক পর্যটক রামুর ওসমান ভবনে বিনামূল্যে রাত্রিযাপন করেছেন। নব দম্পতিরা মধুচন্দ্রিমাও কাটিয়েছেন এ ভবনে। সাধারণ শ্রেণীর লোকজন এই বাড়িকে ব্যবহার করেন কমিউনিটি সেন্টার হিসেবেও।

Comments Below
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ
Shares