বুধবার, ১৩ নভেম্বর ২০১৯, ১১:১৮ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ার অনলাইন পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম। আপনার চারপাশে চলমান অনিয়ম দুর্নীতির খবর আমাদের জানান। দেশকে বাচাঁন দেশকে ভালবাসুন

দক্ষিণ ডিককুলে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণে বাঁধা,সন্ত্রাসী হামালা নারীসহ আহত ২

  • সময় বৃহস্পতিবার, ৭ নভেম্বর, ২০১৯
  • ১৮২ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক,
কক্সবাজার সদরের ঝিলংজা বাসটার্মিনার সংলগ্ন দক্ষিণ ডিককুল এলাকায় অবৈধ ভাবে দখল ও ভবন নির্মাণে বাঁধা দেয়ায় সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়ে নারীসহ দুইজনকে আহত করেছে। এঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সদস্যরা দুই সন্ত্রাসীকে তাৎক্ষণিক আটক ও গুরুত্বর আহত অবস্থায় দুজনকে উদ্ধার করেন। আহতদের কক্সবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

আহতরা হলেন, দক্ষিক ডিককুল এলাকার মৃত ফজল আহমেদের ছেলে ছৈয়দ আলম ও সাজেদা বেগম। এদের মধ্যে ছৈয়দ আলম অবস্থা অাসংখ্যাজনক বলে জানিয়েছে চিকিৎসকরা।গ্রেফতারকৃত সন্ত্রাসীরা হলেন,
শিবির ক্যাডার জোবাইয়ের ও জাবেদ।
বুধবার ৭নভেম্বর বিকালের দিকে দক্ষিণ ডিককুল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

আহত ছৈয়দ আলমের বোন মায়েশা আক্তার জানান, কক্সবাজারে কুখ্যাত সন্ত্রাসী ডজন মালার পালাতক আসামী জাহেদুল গনির নেতৃত্ব দক্ষিণ ডিককুল তাদের খতিয়ানভুক্ত জায়গায অবৈধভাবে আদালতের নিষেজ্ঞা অমান্য করে সন্তাপনা নির্মাণের চেষ্টা করে। এসময় তারা বাঁধা প্রদান করলে সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র নিয়ে হামলা চালায়।

সন্ত্রাসীদের হামলা থেকে বাঁচতে তাৎক্ষণিক বাংলাদেশ পুলিশের কন্ট্রোল রুম ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দিয়ে সাহয্য চাওয়া হয়। কিছুক্ষণ পর সদর থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে এবং পালিয়ে যাওয়ার সময় দুজনকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ।

মায়েশা আরো জানান, তাপশীল মৌজা-ঝিলংজার বিএস ১৪৪০, ১৭২, ১৮৫, ১৯৪৫নং খতিয়ন,বি.এস ১৪৩৮১নং খতিয়ানের বি.এস -১৭৫০৩নং দাগের ০৭একর জমি বিরোধ নিয়ে গত ৪-১১-২০১৯ ইং তারিখে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বরাবর চিহৃত সন্ত্রাসীদের দখলদারিত্ব থেকে জমি রক্ষায় অভিযোগ দেয়া হয়। তিনি আরো জানান,০.১৩ একর জমির আন্দরে ০.০৭ একর জমি দীর্ঘ ৪০ বছর যাবত তার পরিবার ভোগ করে আসছে।

পিতা ফজল আহমদের মৃত্যুর পর থেকে ঝিলংজার দক্ষিন ডিককুল এলাকার শামশুল হুদার ছেলে জাহেদুল গনি, রুবায়েদ এবং জাবেদ জমি জোর করে দখলের জন্য চেষ্টা করছেন বলে অভিযোগ করেন তিনি। এ ব্যাপারে তার পরিবার প্রশাসনের কাছে সহযোগীতা কামনা করেছেন।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সৈয়দ আবু মোহাম্মদ শাহজাহান কবির হামলা এবং দুজনকে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।তিনি জানান আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এবং উভয়কে আদালতের নির্দেশ না আসা পর্যন্ত কোন ধরনের স্তাপনা নির্মাণ থেকে বিরত থাকার জন্য সতর্ক করা হয়েছে।

Comments Below
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ
Shares