রবিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:২৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ার অনলাইন পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম। আপনার চারপাশে চলমান অনিয়ম দুর্নীতির খবর আমাদের জানান। দেশকে বাচাঁন দেশকে ভালবাসুন

২৬ দিন ধরে দলবেঁধে স্কুলছা’ত্রীকে ধ’র্ষণ, এরপর যা ঘটল

  • সময় শনিবার, ২ নভেম্বর, ২০১৯
  • ৭৮ বার পড়া হয়েছে

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজে’লায় জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি)-এর এক পরীক্ষার্থীকে (১৪) অ’পহ’রণের পর আ’ট’কে রেখে ২৫-২৬ দিন ধরে সংঘবদ্ধ ধ’র্ষণ করা হয়েছে বলে অ’ভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল শুক্রবার ভোরে উপজে’লার উস্থি ইউনিয়নের দাইরগাঁও মাদরাসার সামনে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে পালিয়ে যায় অ’পহ’রণকারীরা। এ ঘটনায় সন্ধ্যায় ওই শিক্ষার্থীর বাবা বাদী হয়ে পাগলা থা’নায় মা’মলা দায়ের করেছেন।

ওই ছা’ত্রী উপজে’লার পাগলা থা’নার উস্থি ইউনিয়নের দাইরগাঁও দাখিল মাদরাসার জেডিসি পরীক্ষার্থী। আজ এই পরীক্ষা শুরু হলেও শারীরিকভাবে অ’সুস্থ থাকায় সে পরীক্ষা দিতে পারছে না। ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতা’লে পাঠানো হয়েছে।মা’মলার এজাহার ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত ৬ অক্টোবর দাইরগাঁও গ্রামের আব্দুস ছালামের ছে’লে বিপ্লব মেকার (৩৫), পাশের কলুরগাঁও গ্রামের হেলাল উদ্দিন শেখের ছে’লে শারফুল (২৬) এবং মুর্শিদ খানের ছে’লে ওয়াসির খান (২৮) ওই ছা’ত্রীকে বাড়ির সামনে থেকে অ’পহ’রণ করে অ’জ্ঞাত স্থানে নিয়ে আ’ট’কে রেখে ধ’র্ষণ করেন।

তাকে না পেয়ে পরিবার তখন পাগলা থা’নায় একটি সাধারণ ডায়রি করে। গতকাল ভোরে তাকে দাইরগাঁও মাদরাসার সামনের রাস্তায় ফেলে পালিয়ে যায় অ’পহ’রণকারীরা। ম’সজিদে নামাজ পড়তে আসা লোকজন তাকে দেখতে পেয়ে উ’দ্ধার করে পরিবারের লোকজনকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পরিবারের লোকজন এসে তাকে বাড়ি নিয়ে যায়।এ বিষয়ে ওই ছা’ত্রীর দরিদ্র বাবা বলেন, ‘তিন শয়তান আমা’র মায়ার জীবনডা ধ্বংস কইরা দিছে। আল্লা গো, আমি কই বিচার পাইবাম? আমি উপযুক্ত বিচার চাই।’

উস্থি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নজরুল ইস’লাম তোতা বলেন, ‘এটা একটা মধ্যযুগীয় বর্বরতা। এর কঠোর বিচার হওয়া দরকার।’পাগলা থা’নার ওসি শাহিনুজ্জামান খান বলেন, ‘এ ঘটনায় দ্রুত মা’মলা নেওয়া হয়েছে। মে’য়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতা’লে পাঠানো হয়েছে। আ’সামিদের ধ’রার জন্য পু’লিশের অ’ভিযান চলছে।’

Comments Below
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ
Shares