সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০২:৩৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
দৈনিক আলোকিত উখিয়ার অনলাইন পোর্টালে আপনাকে স্বাগতম। আপনার চারপাশে চলমান অনিয়ম দুর্নীতির খবর আমাদের জানান। দেশকে বাচাঁন দেশকে ভালবাসুন

উখিয়ায় ফোর মার্ডার এলাকা থেকে সন্দেহজনক এক ব্যক্তি আটক

  • সময় মঙ্গলবার, ৮ অক্টোবর, ২০১৯
  • ২৩২ বার পড়া হয়েছে

আলোকিত ডেস্কঃ
কক্সবাজারের উখিয়ায় ফোর মার্ডার এলাকায় সন্দেহজনক আচরণ করায় এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে রত্নাপালং ইউনিয়নের পূর্বরত্না গ্রামের কুয়েত প্রবাসী রোকেন বড়ুয়া’র নিকটাত্নীয় কালু বড়ুয়া জানায়, তার বাড়িতে গিয়ে যাত্রী নেওয়ার কথা বলে দ্রুত স্থান ত্যাগ করার চেষ্টা করলে তার গতিবিধি সন্দেহজনক হলে সামনে দোকানে বসা লোকজনদের সহযোগিতায় আটক করে পুলিশে খবর দেয়।

এ সময় তার বাড়ি কোথায় কোথায় জিজ্ঞেস করা হলে কখনো রত্নাপালং, কখনো ডিগলিয়াপালং, কখনো সিকদার বিল বলে জানায় সে।

আটক ব্যক্তি নিজেকে আকতার হোছন পরিচয় দিয়ে উখিয়া সিকদার বিল এলাকার হামিদুর রহমানের ছেলে বলে জানায়। পেশায় রিক্সা চালক। তাকে কে পাঠিয়েছে সে শাহ আলম নামে এক ব্যক্তি তাকে পাঠিয়েছে বললেও কোন কিছু স্পষ্ট করতে পারেনি।

অপরদিকে আটক ব্যক্তিকে দেখে পার্শ্ববর্তী রাশেল বড়ুয়া’র স্ত্রী হ্যাপী জানান, সম্প্রতি ঘটে যাওয়া হত্যাকান্ডের ৪/৫ দিন পূর্বেও সকাল সাড়ে ৮টার দিকে সে আমাদের বাড়িতে আসে। তখন আমি বাচ্চাকে খাওয়াচ্ছিলাম। তার উপস্থিতি টের পেয়ে আমি বের হয়ে জিজ্ঞেস করলে সে যাত্রী নেওয়ার কথা বললেও আর কিছু না বলে দ্রুত চলে যায়।

রত্নাপালং ইউ.পি সদস্য মোকতার আহমদ বলেন, আটক ব্যক্তি আজকে প্রথম এই গ্রামে আসার কথা বললেও সে নাকি ইতিপূর্বে এই এলাকার বেশ কয়েকটি বাড়ি থেকে মোবাইল চুরি করে নিয়ে গেছে। তাছাড়া আসা-যাওয়া এবং কথাবার্তায় সন্দেহের সৃষ্টি হয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে, তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে জনপ্রতিনিধিদের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন উখিয়া থানার এসআই মো: নিজাম উদ্দিন। তবে হত্যাকান্ডের তদন্তে তার বিষয়টিও সংশ্লিষ্টদের অবহিত করেছি।

এ ঘটনার ১৩দিন অতিবাহিত হলেও হত্যাকান্ডে জড়িতদের বিষয়ে সুস্পষ্ট কিছু জানাতে পারেনি প্রশাসন। আটক হয়নি কেউ। তবে একাধিক তদন্ত টীম মাঠে কাজ করছে। ডিএনএ সহ বেশকিছু রিপোর্ট পেতে মাসখানেক সময় লাগবে বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) নুরুল ইসলাম মজুমদার।

উল্লেখ্য, গত ২৫ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে কক্সবাজারের উখিয়া রত্নাপালং ইউনিয়নের পূর্বরত্না গ্রামের কুয়েত প্রবাসী রোকেন বড়ুয়ার বাড়িতে ঢুকে তার মা-স্ত্রী, ছেলেসহ চারজনকে গলা কেটে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। নিহতরা হলেন, রোকেন বড়ুয়ার মা সখি বড়ুয়া (৫০), স্ত্রী মিলা বড়ুয়া (২৫), ছেলে রবিন বড়ুয়া (৫) ও রোকেন বড়ুয়ার বড় ভাই শিপু বড়ুয়ার মেয়ে সনি বড়ুয়া (৬)।

Comments Below
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ
Shares