বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:৫৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
রোহিঙ্গা শিবিরে বন্ধ হলো  ৪১ এনজিও’র কার্যক্রম! নিষিদ্ধ ঘোষিত এনজিওগুলোর মধ্যে রয়েছে: ফ্রেন্ডশিপ, এনজিও ফোরাম ফর পাবলিক হেলথ, আল মারকাজুল ইসলাম, স্মল কাইন্ডনেস বাংলাদেশ, ঢাকা আহ্‌ছানিয়া মিশন, গ্রামীণ কল্যাণ, অগ্রযাত্রা, নেটওয়ার্ক ফর ইউনিভার্সাল সার্ভিসেস অ্যান্ড রুরাল অ্যাডভান্সমেন্ট, আল্লামা আবুল খায়ের ফাউন্ডেশন, ঘরনী, ইউনাইটেড সোশ্যাল অ্যাডভান্সমেন্ট, পালস, মুক্তি, বুরো-বাংলাদেশ, এসএআর, আসিয়াব, এসিএলএবি, এসডব্লিউএবি, ন্যাকম, এফডিএসআর, জমজম বাংলাদেশ, আমান, ওব্যাট হেলপার্স, হেল্প কক্সবাজার, শাহবাগ জামেয়া মাদানিয়া কাসিমুল উলুম অরফানেজ, ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট ফর সোশ্যাল অ্যান্ড হিউম্যান অ্যাফেয়ার্স, লিডার্স, লোকাল এডুকেশন অ্যান্ড ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন, অ্যাসোসিয়েশন অব জোনাল অ্যাপ্রোচ ডেভেলপমেন্ট, হিউম্যান এইড অ্যান্ড রিলিফ অর্গানাইজেশন, বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিশ, হোপ ফাউন্ডেশন, ক্যাপ আনামুর, টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্স ইনকরপোরেশন, গরীব, এতিম ট্রাস্ট ফাউন্ডেশনসহ কয়েকটি এনজিও।

সিদ্ধিরগঞ্জে নির্মাণাধীন বাড়ীর মালিকের কাছে ২০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি আটক-১।।

  • সময় বুধবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ৪২ বার পড়া হয়েছে
  •  
  •  
  •  
  •  

এস.কে মাসুদ রানা (বিশেষ) প্রতিনিধি ।।
সিদ্ধিরগঞ্জে নির্মাণাধীন ৬তলা পাকা ভবনের মালিকের কাছে চাঁদা দাবি করায় জাহাঙ্গীর মোল্লা সারজাহান (৫৫) নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত আসামী মাদারীপুরের শিবচর থানাধীন হাওলাদারকান্দি (দক্ষিণ চর জানাজাত) গ্রামের মৃত কাশেম মোল্লার ছেলে। বর্তমানে সে পরিবারসহ সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন আটি হাউজিং এলাকার জহুরা ভিলায় বসবাস করে আসছে।

এর আগে গত মঙ্গলবার (৯ সেপ্টেম্বর) ভবনের মালিক আব্দুর রহমান ৩ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরো ৩/৪ জনকে আসামী করে থানায় মামলা (মামলা নং-২৫) দায়ের করেন। মামলার বাকী আসামীরা হল- গ্রেফতারকৃত আসামী জাহাঙ্গীর মোল্লার ছেলে বিল্লাল (২২) এবং আটি হাউজিং এলাকার মোর্শেদ আলমের বাড়ীর ভাড়াটিয়া ও হারুনের ছেলে সিয়াম (২২) সহ অজ্ঞাত আরো ৩/৪ জন।
মামলা সূত্রে জানা যায়, আব্দুর রহমানের ক্রয়কৃত জমিতে বাড়ী নির্মাণ কাজ চলাকালীন গত ২৮ আগষ্ট বিকেলে নির্মাণকাজে বাধা প্রদান করে বিবাদীপক্ষ। কাজ বন্ধের কারণ জানতে চাইলে বাদী পক্ষের কাছে বিশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে তারা। চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে আব্দুর রহমানকে বিবাদীপক্ষ মারধর করে এবং জীবন নাশের হুমকি দেয়। পরে আশে-পাশের লোকজন এসে তাকে উদ্ধার করে।
ভূক্তভোগী আব্দুর রহমান বলেন, আমি জাহাঙ্গীর মোল্লার কাছ থেকে জমি ক্রয় করে বাড়ী নির্মাণের কাজ শুরু করেছি। এরপর সে সহ সিয়াম, তার ছেলে বিল্লাল ও আরো ৩/৪ জন মিলে আমার বাড়ীর নির্মাণ কাজে বাধা প্রদান করে আমার কাছ থেকে বিশ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দিলে আমাকে সে প্রাণে মেরে ফেলবে বলে হুমকি প্রদান করেছে।এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ আজিজুল হক জানান, চাঁদা দাবিকারীদের বিরুদ্ধে ভূক্তভোগী মামলা দায়ের করেছে। মামলার প্রধান আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

Comments Below
  •  
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ