বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:২২ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
রোহিঙ্গা শিবিরে বন্ধ হলো  ৪১ এনজিও’র কার্যক্রম! নিষিদ্ধ ঘোষিত এনজিওগুলোর মধ্যে রয়েছে: ফ্রেন্ডশিপ, এনজিও ফোরাম ফর পাবলিক হেলথ, আল মারকাজুল ইসলাম, স্মল কাইন্ডনেস বাংলাদেশ, ঢাকা আহ্‌ছানিয়া মিশন, গ্রামীণ কল্যাণ, অগ্রযাত্রা, নেটওয়ার্ক ফর ইউনিভার্সাল সার্ভিসেস অ্যান্ড রুরাল অ্যাডভান্সমেন্ট, আল্লামা আবুল খায়ের ফাউন্ডেশন, ঘরনী, ইউনাইটেড সোশ্যাল অ্যাডভান্সমেন্ট, পালস, মুক্তি, বুরো-বাংলাদেশ, এসএআর, আসিয়াব, এসিএলএবি, এসডব্লিউএবি, ন্যাকম, এফডিএসআর, জমজম বাংলাদেশ, আমান, ওব্যাট হেলপার্স, হেল্প কক্সবাজার, শাহবাগ জামেয়া মাদানিয়া কাসিমুল উলুম অরফানেজ, ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট ফর সোশ্যাল অ্যান্ড হিউম্যান অ্যাফেয়ার্স, লিডার্স, লোকাল এডুকেশন অ্যান্ড ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন, অ্যাসোসিয়েশন অব জোনাল অ্যাপ্রোচ ডেভেলপমেন্ট, হিউম্যান এইড অ্যান্ড রিলিফ অর্গানাইজেশন, বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিশ, হোপ ফাউন্ডেশন, ক্যাপ আনামুর, টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্স ইনকরপোরেশন, গরীব, এতিম ট্রাস্ট ফাউন্ডেশনসহ কয়েকটি এনজিও।

চাকরির সাক্ষাৎকারে বেতন নিয়ে কথা বলবেন যেভাবে

  • সময় মঙ্গলবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে
  •  
  •  
  •  
  •  

আলোকিত ডেস্কঃ
একটি ভালো চাকরি কে না চায়। দেশে যেহুতু শিক্ষিত বেকারের সংখ্যা বেশি তাই চাকরি পাওয়াটা বেশ জটিল হয়ে যাচ্ছে। তবে দেশে শিক্ষিতের সংখ্যা বেশি হলেও সুশিক্ষিত নয় অনেকেই। নাম মাত্র শিক্ষিত বেকারের সংখ্যার পরিমাণটা একটু বেশি। চাকরির জন্য চেষ্টা করা হয় ঠিকই কিন্তু চাকুনি না পাওয়ার কিছু বিশেষ কারণ দেখা যায়। দক্ষতা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়। সেই সঙ্গে ভাইবাবোর্ডেও কিছু খুঁটিনাটি বিষয়ে মনোযোগ দেওয়া উচিত। কিছু সামান্য ভুলে হওয়া চাকরিটাও না হতে পারে। আজকে ইন্টারভিউবোর্ডে বেতনের কথা কিভাবে বলতে হয় সেটাই জানানোর চেষ্টা থাকবে।
বেতনের প্রসঙ্গে যখন কথা বলবেন: ইন্টারভিউয়ের শুরুতেই বেতনের প্রসঙ্গ তুলবেন না। আগে নিজের সম্পর্কে ভালো ধারণা তৈরি করুন সাক্ষাৎকার গ্রহণকারীদের মনে। নিজের দক্ষতা সম্পর্কে তাদেরকে জানান। চাকরির পদটির জন্য আপনিই কেন যোগ্য প্রার্থী, সেটা তাদেরকে বুঝিয়ে দিন। এরপর একদম শেষ পর্যায়ে বেতনের কথা তুলুন।

কৌশলী হতে হবে: বেতন প্রসঙ্গে কথা বলার সময় কৌশলী হতে হবে। আপনার আগের অর্জনগুলো সম্পর্কে জানাতে হবে। আপনার অভিজ্ঞতাগুলোকে কাজে লাগিয়ে কীভাবে কোম্পানির উন্নতি করা সম্ভব তা বুঝাতে হবে। মোট কথা, নতুন চাকরীটা নিয়ে আপনার উৎসাহ এবং আত্মবিশ্বাস দেখাতে হবে।
মার্কেট রিসার্চ: চাকরির ইন্টারভিউতে বেতন প্রসঙ্গে কথা বলার জন্য আগে থেকেই মার্কেট রিসার্চ করুন। আপনার সমান দক্ষতা এবং পদমর্যাদায় যারা অন্য অফিসে চাকরি করছেন তারা কতো বেতন পাচ্ছেন সেই বিষয়ে জানার চেষ্টা করুন।
নিজের প্রত্যাশার কথা ভাবুন: আপনার জীবনধারণ এবং সঞ্চয়ের জন্য কতো অর্থের প্রয়োজন সেটা হিসাব করুন। বেতনের প্রসঙ্গে কথা বলার সময় নিজের প্রত্যাশাকে গুরুত্ব দিন।

Comments Below
  •  
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ