বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:৫৭ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
রোহিঙ্গা শিবিরে বন্ধ হলো  ৪১ এনজিও’র কার্যক্রম! নিষিদ্ধ ঘোষিত এনজিওগুলোর মধ্যে রয়েছে: ফ্রেন্ডশিপ, এনজিও ফোরাম ফর পাবলিক হেলথ, আল মারকাজুল ইসলাম, স্মল কাইন্ডনেস বাংলাদেশ, ঢাকা আহ্‌ছানিয়া মিশন, গ্রামীণ কল্যাণ, অগ্রযাত্রা, নেটওয়ার্ক ফর ইউনিভার্সাল সার্ভিসেস অ্যান্ড রুরাল অ্যাডভান্সমেন্ট, আল্লামা আবুল খায়ের ফাউন্ডেশন, ঘরনী, ইউনাইটেড সোশ্যাল অ্যাডভান্সমেন্ট, পালস, মুক্তি, বুরো-বাংলাদেশ, এসএআর, আসিয়াব, এসিএলএবি, এসডব্লিউএবি, ন্যাকম, এফডিএসআর, জমজম বাংলাদেশ, আমান, ওব্যাট হেলপার্স, হেল্প কক্সবাজার, শাহবাগ জামেয়া মাদানিয়া কাসিমুল উলুম অরফানেজ, ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট ফর সোশ্যাল অ্যান্ড হিউম্যান অ্যাফেয়ার্স, লিডার্স, লোকাল এডুকেশন অ্যান্ড ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন, অ্যাসোসিয়েশন অব জোনাল অ্যাপ্রোচ ডেভেলপমেন্ট, হিউম্যান এইড অ্যান্ড রিলিফ অর্গানাইজেশন, বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিশ, হোপ ফাউন্ডেশন, ক্যাপ আনামুর, টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্স ইনকরপোরেশন, গরীব, এতিম ট্রাস্ট ফাউন্ডেশনসহ কয়েকটি এনজিও।

যারা ভালো খেলে তাদের বেতন বেশি দেয়া হোক: সাকিব

  • সময় সোমবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২৪ বার পড়া হয়েছে
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলাদেশ দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টির অধিনায়ক সাকিব আল হাসান বলেছেন, ‘আমি সব সময় বলেছি চেষ্টা থাকে কীভাবে ভালো করতে পারি। সব সময় অবদান রাখতে পারব না, এটি খুবই স্বাভাবিক। একটা ম্যাচ খারাপ যেতেই পারে।’

সাকিব আরও বলেন, ‘যারা সব সময় ভালো খেলবে তাদের ম্যাচ ফি বেশি দেয়া উচিত। কারণ যদি সব সময় কিছু খেলোয়াড়ই খেলে, তাহলে তাদের ম্যাচ ফি বেশি হওয়া উচিত। আমার তাই মনে হয়।’

আফগানিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে চতুর্থ ইনিংসে ৩৯৮ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে ২২৪ রানে হেরে যায় বাংলাদেশ। দলের এই পরাজয়ের ম্যাচে বল হাতে দুই ইনিংসে পাঁচ উইকেট শিকারের পাশাপাশি ৫৫ রান করেন সাকিব।

সোমবার বৃষ্টি বিঘ্নিত দিনে ড্রয়ে চট্টগ্রাম টেস্ট শেষ করতে হলে শেষ বিকালে বাংলাদেশকে ১৮.৩ ওভার ব্যাটিং করতে হতো। এমন সহজ সমীকরণের ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমে অফ স্টাম্পের অনেক বাইরের বলে খোঁচা দিতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন সাকিব। বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার আউট না হলে আফগানদের বিপক্ষে ড্রয়ে চট্টগ্রাম টেস্ট শেষ করতে পারত বাংলাদেশ।

এদিন খেলা শেষে সাকিব বলেন, ‘বিষয়টা এমন না যে বিশ্বকাপে ভালো খেলার পর আমি মনে করেছি আকাশে ছিলাম। আবার এই ম্যাচ খারাপ খেলার পর মনে করেছি যে আমি মাটির তলে চলে গেছি, তাও না। আমি যেখানে ছিলাম সেখানেই আছি। এখন এটা কে কীভাবে নেবে বা কে কীভাবে চিন্তা করবে, এটা তাদের ব্যাপার।’

Comments Below
  •  
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ