বৃহস্পতিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০১:২১ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ
রোহিঙ্গা শিবিরে বন্ধ হলো  ৪১ এনজিও’র কার্যক্রম! নিষিদ্ধ ঘোষিত এনজিওগুলোর মধ্যে রয়েছে: ফ্রেন্ডশিপ, এনজিও ফোরাম ফর পাবলিক হেলথ, আল মারকাজুল ইসলাম, স্মল কাইন্ডনেস বাংলাদেশ, ঢাকা আহ্‌ছানিয়া মিশন, গ্রামীণ কল্যাণ, অগ্রযাত্রা, নেটওয়ার্ক ফর ইউনিভার্সাল সার্ভিসেস অ্যান্ড রুরাল অ্যাডভান্সমেন্ট, আল্লামা আবুল খায়ের ফাউন্ডেশন, ঘরনী, ইউনাইটেড সোশ্যাল অ্যাডভান্সমেন্ট, পালস, মুক্তি, বুরো-বাংলাদেশ, এসএআর, আসিয়াব, এসিএলএবি, এসডব্লিউএবি, ন্যাকম, এফডিএসআর, জমজম বাংলাদেশ, আমান, ওব্যাট হেলপার্স, হেল্প কক্সবাজার, শাহবাগ জামেয়া মাদানিয়া কাসিমুল উলুম অরফানেজ, ডেভেলপমেন্ট ইনস্টিটিউট ফর সোশ্যাল অ্যান্ড হিউম্যান অ্যাফেয়ার্স, লিডার্স, লোকাল এডুকেশন অ্যান্ড ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট অর্গানাইজেশন, অ্যাসোসিয়েশন অব জোনাল অ্যাপ্রোচ ডেভেলপমেন্ট, হিউম্যান এইড অ্যান্ড রিলিফ অর্গানাইজেশন, বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিশ, হোপ ফাউন্ডেশন, ক্যাপ আনামুর, টেকনিক্যাল অ্যাসিস্ট্যান্স ইনকরপোরেশন, গরীব, এতিম ট্রাস্ট ফাউন্ডেশনসহ কয়েকটি এনজিও।

অসুস্থ্য কর্মীকে দেখতে কুমিল্লায় আসলেন সৌদি মালিক!

  • সময় রবিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২৭৩ বার পড়া হয়েছে
  •  
  •  
  •  
  •  

ভাষা-সংস্কৃতি, ধ’র্ম-বর্ণসহ নানা সংস্কার ও ভে’দাভে’দ ভুলে শুধু প্রেমের টানে বাংলাদেশে ছুটে এসেছেন অনেক বিদেশি তরুনী। কিন্তু এইবার ঘটলো এক ব্যতিক্রম কাহিনী। কুমিল্লার বরুড়া উপজেলার ১৪নং লক্ষীপূরের নলুয়া চাঁদপুর গ্রামে বাংলাদেশী এক ক’র্মীর মায়ায় সৌদির নাগরিক (ক’র্মীর মালিক) বাংলাদেশে এসেছে তাকে দেখতে।

লোকমুখে জানা যায়, নলুয়া চাঁদপুর গ্রামের সুদির শীল দীর্ঘ ১৫ বছর ঐ মালিকের প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলো। তারপর প্রায় ৮-১০ বছর আগে সৌদি আরব থেকে বাংলাদেশে চলে আসে অ’সুস্থতা কারনে।

তারপর থেকে আর বিদেশ যাওয়া হয়নি সুদির শীলের। তিনি যে প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন, সে প্রতিষ্ঠানের মালিক পুরাতন ক’র্মীর মায়ায় বাংলাদেশে চলে এসেছে সে ক’র্মীকে দেখতে।

গত ২৮ আগষ্ট তিনি বাংলাদেশে আসেন, তারপর ফোনে যোগাযোগের মাধ্যমে তিনি ওই ক’র্মীর বাড়িতে এসে পৌছেন । এর মধ্যেই এলাকায় এই খবর ছড়িয়ে পড়ে। এলাকাবাসি সৌদির নাগরিক কে দেখ তে ও তার মহানুভবতাকে স্বাগত জানাতে সুদির শীলের ভিড় জমাচ্ছে।

Comments Below
  •  
  •  
  •  
  •  

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ