রবিবার, ২৫ অগাস্ট ২০১৯, ০৩:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম
মিয়ানমারের কাছে নতিস্বীকার করেছে সরকার: ফখরুল এক মাস পিছিয়ে গেলো বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ মাদকাসক্ত ছেলেকে পুলিশে দিলেন বাবা ‘দেশের স্বার্থ রক্ষা করে সাংবাদিকদের ইতিবাচক সংবাদ পরিবেশন করতে হবে’ উখিয়া -টেকনাফে দুই বছরে বন্দুক যুদ্ধে ৩২ রোহিঙ্গা নিহত রামুতে অপহরণের ২দিন পর ৫ম শ্রেণির ছাত্রী উদ্ধার ॥ আটক ২ মাহবুবুল হক মুকুল কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রোহিঙ্গাদের জন্ম ও নাগরিকত্ব সনদ দিলেই মামলা স্বামী বেশী ভালবাসা দেওয়ার কারণে, তালাক চাইলেন স্ত্রী উখিয়ারঘোনা লামার পাড়া পুরাতন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ এর ভবন নির্মাণ কাজ উদ্বোধন বরিশালের হিজলাতে আইভি রহমানের মৃত্যু বার্ষিকী পালিত । বরিশালের মুলাদীতে প্রেমের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় আয়েশা আক্তার নামে এক ছাত্রীকে তুলে নিয়ে যায় এক যুবক।। উখিয়ায় জোরপূর্বক জমি জবর দখলে নিতে সন্ত্রাসী হামলা, আহত-৪ সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ বাংলাদেশি নিহত ‘রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরত পাঠাতে যুক্তরাষ্ট্র চাপ অব্যাহত রাখবে’ : মার্কিন রাষ্ট্রদূত জেমস বন্ড সিরিজের ২৫তম মুভির নাম চূড়ান্ত শহীদ মিনারে মোজাফফর আহমদের প্রতি সর্বজনের শেষ শ্রদ্ধা দেড় কিঃমিঃ রাস্তা পরিষ্কার করলো এফ.বি এসোসিয়েশন ‘ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবিলায় সরকারের কোনো প্রতিষ্ঠানের অবহেলার নজির নেই’ নারী ও শিশু অধিকার ফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মনোনীত হওয়ায় ছাত্রদল নেতা মোঃ কেফায়ত উল্লাহ’র শুভেচ্ছা রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন করাই উত্তম: তাজুল ইসলাম আধুনিক চ্যালেঞ্জের মুখে সন্তান প্রতিপালনের দশটি দিক নির্দেশনা। মহেশপুরে সাতপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ তলা ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করলেন-এমপি চঞ্চল। মোজাফফর রাজনীতিকে এতিম করে চলে গেলেন : মোমিন মেহেদী ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৯ টেকনাফে ফারুক হত্যায় জড়িত ২ রোহিঙ্গা বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৮দিনের সরকারী সফরে দক্ষিণ কোরিয়া ও থাইল্যান্ড যাচ্ছেন মেয়র মুজিবুর রহমান অফিসেই নারীকর্মীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় জামালপুরের ডিসি! মুখের কালো দাগ দূর করবেন যেভাবে রাঙ্গামাটিতে সেনাবাহিনীর অভিযানে শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত

উ‌খিয়া কুতুপালং পিতা পু‌ত্রের রমরমা ইয়াবা কারবারঃ বাবা চাপা‌টি জাপর পুত্র বাবুল ও সাদ্দাম

  • সময় বৃহস্পতিবার, ৮ আগস্ট, ২০১৯
  • ৩১ বার পড়া হয়েছে

আ‌লো‌কিত ক্রাইম প্রতিবেদকঃ

উ‌খিয়া কুতুপালং‌য়ের লম্বা‌শিয়া এলাকায় মাদকের ঘা‌টি তৈরী ক‌রে পিতা পু‌ত্রের সে‌ন্ডি‌কে‌টের মাধ্য‌মে মাদ‌কের রমরমা ব্যবসা চা‌লি‌য়ে যা‌চ্ছে ব‌লে অ‌ভি‌যোগ পাওয়া গে‌ছে।
মাদক বি‌রোধী অভিযানে গড ফাদা‌রেরা গা ডাকা দিলে তা‌দের ছত্রছায়ায় নিয়‌ন্ত্রিতরা বর্তমা‌নে গড ফাদা‌রের ভু‌মিকায় র‌য়ে‌ছে। চু‌ক্তি‌তে ‌রো‌হিঙ্গা‌দের ব্যবহার ক‌রে ইয়াবা পাচার এখন নতুন কৌশল।
অ‌ভি‌যো‌গের সুত্রম‌তে, কুতুপালং লম্বা‌শিয়া এলাকার জাপর আলম প্রকাশ চাপা‌টি জাপর এবং তার দুই পুত্র বাবুল ও সাদ্দাম লম্বা‌শিয়া এলাকায় মাদ‌কের ঘা‌টি তৈরী ক‌রে খুচরা ও পাইকারী ভি‌ত্তিতে মদ গাজা ইয়াবা হি‌রোইন এবং প‌তিতা ব্যবসার হাট ব‌সি‌য়ে‌ছে ব‌লে গুরতর অ‌ভি‌যোগ এই পিতা পুত্র সে‌ন্ডি‌কে‌টের বিরু‌দ্ধে।

২/৩ বছর আগেও খে‌টে খাওয়া নুন আন‌তে পানতা পু‌রোত এই প‌রিবার বর্তমা‌নে মাদ‌কের ব্যবসার ব‌দৌল‌তে কো‌টি টাকার সম্প‌দের মা‌লিক হ‌য়ে‌ছে ব‌লে জানান এলাকাবাসী।
কুতুপালং লম্বা‌শিয়া ১ নং ক্যা‌ম্পের মাহমুদুর রহমান ও ও‌লিউল্লা উক্ত সে‌ন্ডি‌কে‌টের মাদ‌কের যোগানদাতা ব‌লে জা‌নি‌য়ে‌ছেন অ‌ভি‌যোগকারীরা । তারা মায়ানমার থে‌কে সরাস‌রি বিশাল ইয়াবার চালান নি‌য়ে আ‌সে এবং বাবুল ও সাদ্দাম সারা দেশ জু‌ড়ে ইয়াবা নেটওর্য়া‌কের মাধ্য‌মে ছ‌ড়ি‌য়ে দি‌চ্ছে ব‌লে জানান এলাকার স‌চেতন মহল।
এলাকাবাসী আ‌রো জানান, আমরা আইন শৃংখলা বা‌হিনী‌দের একা‌ধিকবার জা‌নি‌য়ে‌ছি কিন্তু হি‌তে বিপরীত। আমরা শু‌নে‌ছি বর্তমান উ‌খিয়া থানার নবাগত ও‌সি মাদ‌কের বিরু‌দ্ধে যুদ্ধ ঘোষনা ক‌রে‌ছে তাই সংবাদপ‌ত্রের মাধ্য‌মে আমরা উ‌খিয়া থানার ও‌সি কে উক্ত মাদক কারবারী‌দের বিরু‌দ্ধে ব্যবস্থা গ্রহ‌নের জোর দাবী জানা‌চ্ছি।

অ‌ভি‌যোগ ম‌তে, বিভিন্ন পরিবহনের ড্রাইভার ও হেলপার‌দের সা‌থে মাদককারবারী‌দের ম‌ধ্যে র‌য়ে‌ছে ক‌মিশন ভি‌ত্তিক চু‌ক্তি। তারাই বি‌শেষ কৌশ‌লে দে‌শের বি‌ভিন্ন প্রা‌ন্তে মাদক সরবরাহ ক‌রে। ঢাকায় মওজুদকৃত ইয়াবা বাবুল ও সাদ্দাম সরবরাহ ক‌রে ঢাকার মাদক কারবারী‌দের নিকট। অন্যান্য জেলায় ব্যবসা নিয়ন্ত্রন ক‌রে সে‌ন্ডি‌কে‌টের বাকী সদস্যরা। টাকার লেন‌দেন হয় বিকা‌শের মাধ্যমে।

সু‌ত্রে জানা যায়, বাবুল ও সাদ্দাম দে‌শের বি‌ভিন্ন জেলায় আইনশৃংখলা বা‌হিনীর হা‌তে একা‌ধিকবার আটক হ‌লেও ‌জেল পর্যন্ত যে‌থে হয়‌নি কখ‌নো। ইয়াবার কা‌লো টাকার বি‌নিম‌য়ে বের হ‌য়ে আ‌সে প্র‌তিবার।
অ‌ভি‌যোগকারী‌দের ম‌তে, বাবা পু‌ত্রের এই সে‌ন্ডি‌কে‌টের কোন সদস্য‌কে পু‌লিশ দে‌খে ও না দেখার ভান ক‌রে। অন্যথায় এই বহুল আ‌লো‌চিত সে‌ন্ডি‌কেট কেন ধরা‌ছোয়ার বাই‌রে র‌য়ে‌ছে এত‌দিন ? এমন প্রশ্ন এলাকার স‌চেতন মহ‌লের। অ‌ভি‌যোগকারী‌দের ভাষ্যম‌তে, তারা ইয়াবা কারবার ব‌ন্ধের জন্য একা‌ধিকবার বলা হ‌লেও তা কোন কা‌জে আ‌সে‌নি। তারা আ‌রো উ‌ল্টো আমা‌দের মামলা হামলার ভয় দেখায়। আমা‌দের না‌কি ইয়াবা দি‌য়ে মামলা ক‌রি‌য়ে দি‌বে। দ‌ম্ভো‌ক্তির সু‌রে ব‌লে পু‌লিশ না‌কি তা‌দের কথায় উ‌ঠে ও ব‌সে।
এই ব্যা‌পের উক্ত এলাকার জনপ্র‌তি‌নি‌ধি মৌঃ বখ‌তিয়ার অ‌ভি‌যো‌গের সত্যতা নি‌শ্চিত ক‌রে জানান, তারা রো‌হিঙ্গা‌দের নি‌য়ে সে‌ন্ডি‌কেট ক‌রে ইয়াবা কারবা‌রের সা‌থে জ‌ড়িত আ‌ছে বহু‌দিন ধ‌রে। আ‌মি তা প্র‌তিহত কর‌তে অ‌নেক বার চেষ্টা ক‌রে ব্যর্থ হ‌য়ে‌ছি। আ‌মি পু‌লিশ প্রশাসন‌কে প্র‌য়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার অনু‌রোধ কর‌ছি।
এ ব্যাপা‌রে উ‌খিয়া থানা সু‌ত্রে জানান, রো‌হিঙ্গা ক্যম্প মাদ‌কের আস্তানা এ বিষ‌য়ে আমরা অবগত আ‌ছি। এবং প্রতি‌নিয়ত মাদ‌কের আগ্রাসন চ‌লে ব‌লে আমরা শু‌নে‌ছি। অ‌ভিযান অব্যাহত র‌য়ে‌ছে। আইনশৃংখলা উন্নয়ন ও মাদক নিরস‌নে আমরা প্র‌তি‌নিয়ত কাজ ক‌রে যা‌চ্ছি। অপরাধী যে হোকনা কেন কোন ছাড় নেই।

Comments Below

সংবাদটি শেয়ার করুন

আরো সংবাদ

Shares